Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'বাবা চিড়িয়াখানার জন্তু নয়', শয্যাশায়ী অবস্থার ছবি তোলায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে তোপ মনমোহন কন্যার

 দামান একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, "আমার মা খুব কষ্ট পেয়েছেন। মন্ত্রীর সঙ্গেই বাবার ঘরে একজন ফটোগ্রাফার ঢুকেছিলেন। এনিয়ে মা বারণ করা সত্ত্বেও গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। আমার বাবা ও মা অত্যন্ত কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন।"

Not animals in a zoo daughter of Manmohan Singh says after Mandaviya got picture in AIIMS bmm
Author
Kolkata, First Published Oct 16, 2021, 12:20 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

অসুস্থ হয়ে দিল্লির এইমসে (AIIMS) ভর্তি রয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং (Manmohan Singh)। তাঁর স্বাস্থ্যের খোঁজ নিতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য (Mansukh Mandaviya)। তা নিয়ে অবশ্য মনমোহনের পরিবারের সদস্যদের কোনও সমস্যা ছিল না। কিন্তু, ফটোগ্রাফার (photographer) নিয়ে হাসপাতালে গিয়েছিলেন মন্ত্রী। এমনকী, শয্যাশায়ী প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর ছবিও তোলেন তিনি। তারপর তা শেয়ার করেন সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। যা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছেন মনমোহন কন্যা দামান সিং (Daman Singh)। 

এ প্রসঙ্গে দামান একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, "আমার মা খুব কষ্ট পেয়েছেন। মন্ত্রীর সঙ্গেই বাবার ঘরে একজন ফটোগ্রাফার ঢুকেছিলেন। এনিয়ে মা বারণ করা সত্ত্বেও গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। আমার বাবা ও মা অত্যন্ত কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। তাঁদের বয়স হয়েছে। তাঁরা চিড়িয়াখানার জন্তু (animals in a zoo) নন।" এভাবেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। 

আরও পড়ুন- গ্লোবাল হাঙ্গার রিপোর্ট রীতিমত অবাক করার মত, তথ্য পেশ করে বলল কেন্দ্রীয় সরকার

যদিও এখনও পর্যন্ত এই বিষয় নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বা তাঁর অফিসের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি। ওই সংবাদ মাধ্যমের তরফে একাধিকবার তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু, তাঁদের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছে, এইমসের প্রেসিডেন্ট হিসেবে একটা নিয়ম চালু রয়েছে। যেখানে এইমসে ভর্তি থাকা অসুস্থদের খোঁজ নিতে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। যিনি ভর্তি রয়েছেন তাঁর চিকিৎসা ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হচ্ছে কিনা, এগুলি নিশ্চিত করা তাঁর কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

আরও পড়ুন- খিদের জ্বালায় জ্বলছে দেশ, বিশ্ব ক্ষুধা সূচকের আরও তলানিতে নেমে গেল ভারত

উল্লেখ্যে, ১৩ অক্টোবর দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে মনমোহন সিংকে। দু’দিন ধরে তাঁর জ্বর ছিল। সঙ্গে শারীরিক দুর্বলতাও। কংগ্রেস সূত্রে খবর, সর্বক্ষণ যাতে চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রাখা যায়, সে কারণেই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এর আগে মার্চ ও এপ্রিল মাসে করোনা টিকার দুটি ডোজ নিয়েছিলেন তিনি। আর তার কিছুদিন পরই তাঁর শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। ১৯ এপ্রিল জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। সেই সময় সোয়াবের নমুনা পরীক্ষা করে জানা যায় তিনি করোনায় আক্রান্ত। তবে কিছুদিনের মধ্যেই তিনি সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন। এরপর কয়েক মাস যেতে না যেতেই আবার অসুস্থ হয়ে পড়লেন তিনি। এবার তাঁর শরীরে ডেঙ্গুর সংক্রমণ ধরা পড়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে আগের থেকে এখন তিনি অনেকটাই স্থিতিশীল রয়েছেন বলে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, মমতাকে সমর্থন গোয়ার বিধায়কের, BJP-কে তোপ দেগে কংগ্রেসের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রসাদের

এ প্রসঙ্গে দামান বলেন, "আমার বাবা ডেঙ্গুতে ভুগছেন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে গিয়েছে। সেই পরিস্থিতিতে বাইরের কারও ওই ঘরে ঢোকা ঠিক নয়। এতে সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যায়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী গিয়েছেন ঠিকই আছে। কিন্তু এই সময় তাঁদের ছবি তোলার মতো পরিস্থিতি নেই। আর আমার মা যখন মন্ত্রীকে বার বার বলেছেন ফটোগ্রাফারকে বের করে দিতে তখনও সেটা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। তাতে মা খুবই কষ্ট পেয়েছে।" 

 

 

মনমোহন সিংয়ের সুস্থতা কামনা করে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। তিনি লেখেন, "আমি ড. মনমোহন সিং জির সুস্বাস্থ্য ও দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।" সুস্থতা কামনা করে টুইট করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীও। এছাড়া প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালে দেখতে যান কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। চিকিৎসকদের সঙ্গে কথাও বলেন তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios