ভারতের সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত জানিয়েছিলেন, ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতের বায়ুসেনার তরফে যে জইশ-ই-মহম্মদের যে জঙ্গি ঘাঁটি নিকেশ করে দিয়েছিল, সেই জঙ্গি শিবির ফের সক্রিয় হয়ে উঠছে। সেনাপ্রধানের এই মন্তব্যকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করল পাকিস্তান। 

প্রসঙ্গত, এদিন সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত দাবি করেছিলেন যে, প্রায় ৫০০ সন্ত্রাসবাদী ভারতে অনুপ্রবেশের অপেক্ষা করছে। সেনাপ্রধানের এই দাবি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে দাবি করল পাকিস্তান। পাক বিদেশ দফতরের মুখপাত্র ডক্টর মহম্মদ ফইজল জানিয়েছেন, 'ভারতের এই মন্তব্য় আঞ্চলিক শান্তি এবং সুস্থিতি বজায় রাখার বিরুদ্ধে। এই ধরণের নেতিবাচক বার্তা দিয়ে ভারত আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে পারবে না। '

সোমবার চেন্নাইয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এসে সেনা প্রধান জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানের বালাকোটে যে জইশ-জঙ্গি শিবিরে হামলা চালিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ভারতীয় বায়ুসেনা, সেই জঙ্গি শিবির ফের সক্রিয় হয়ে উঠতে চলেছে। সেদিন তিনি আরও বলেন, ভারতে প্রবেশ করার জন্য বালাকোটের শিবিরে ৫০০ জঙ্গি অপেক্ষায় রয়েছে। তাঁর আরও দাবি ছিল, ভারতে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশের সুযোগ করে দিতেই পাকিস্তান সীমান্তে লাগাতার যুদ্ধবিরতি  লঙ্ঘন করে চলেছে। তবে তার পাল্টা হিসাবে ভারতের তরফেও যথেষ্ট প্রতিরোধের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছিলেন সেনা প্রধান রাওয়াত।

আরও পড়ুন- নাম বদলে ফেলল জইশ জঙ্গি গোষ্ঠী, বড়সড় আত্মঘাতী হামলার জন্য চলছে প্রস্তুতি

আরও পড়ুন- ফের সক্রিয় বালাকোট, হামলার অপেক্ষায় ৫০০ জঙ্গি, এবার হবে কোন 'স্ট্রাইক'

আরও পড়ুন- 'হাউডি মোদী'র পর ফের ভোলবদল, ইমরানের সঙ্গে বৈঠকে ফের কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতার দাবি ট্রাম্পের

আরও পড়ুন- আল-কায়দাকে জঙ্গি প্রশিক্ষণ দিয়েছে পাক সেনা ও আইএসআই, ইমরান খানের বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি

পুলওয়ামা হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের প্রাণহানির পর পাল্টা আঘাত হিসাবে এয়ারসস্ট্রাইক চালিয়েছিল ভারত। তার আগে উরি হামলার পরেও সার্জিকাল স্ট্রাইক চালিয়েছিল ভারত। তবে এবার কী স্ট্রাইক চালাবে ভারত- সেই নিয়ে সেনা প্রধান কিছু অবশ্য জানাননি, তার আগেই ভারতের এই দাবিকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করল পাকিস্তান।