এখনও উর্ধমুখী জ্বালানির দাম। শুক্রবার নয়া দিল্লিতে পেট্রলের দাম বেড়ে গিয়ে হয়েছে ৭৪.৩৪ টাকা, এবং বাণিজ্য নগরী মুম্বইতে পেট্রলের দাম বেড়ে গিয়ে হয়েছে ৮০ টাকা প্রতি লিটার। তবে নয়া দিল্লিতে ডিজেলের দাম অবশ্য একই রয়েছে, লিটার প্রতি ৬৭.১৪ টাকা। মুম্বই শহরে ডিজেলের দাম ১১ পয়সা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৭০.৫৫ টাকা। 

কলকাতাতেও একইভাবে ঊর্ধ্বমুখী পেট্রল-ডিজেলের দাম। কলকাতায় পেট্রলোর দাম লিটার প্রতি ৭৭.০৩ টাকা এবং ডিজেলের দাম ৬৯.৬৬ টাকা। পাশাপাশি চেন্নাইয়ে লিটার প্রতি পেট্রলের দাম ৭৭.২৮ টাকা এবং প্রতি লিটার ডিজেলের দাম ৭১.০৯ টাকা। নয়ডার পরিস্থিতিও একইরকম। সেখানে  প্রতি লিটার পেট্রলের দাম ৭৫.৭৭ টাকা এবং ডিজেলের দাম ৬৭.৫৬ টাকা।বৃহস্পতিবার সেখানে পেট্রলের দাম ছিল লিটার প্রতি ৭৫.৬৬ টাকা এবং ডিজেলের দাম ছিল লিটার প্রতি ৬৭.৪৬ টাকা। এই নিয়ে দৈনিক তেলের মূল্য দশম বারের জন্য বৃদ্ধি পেল। 

আরও পড়ুন- আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সমাদৃত স্বচ্ছ ভারত অভিযান, 'গ্লোবাল গোলকিপার' পুরস্কার পেলেন নমো

আরও পড়ুন- বিরাট দুর্ঘটনার কবলে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কনভয়, ঘটনাস্থলে মৃত ২, ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

আরও পড়ুন- চন্দ্রপৃষ্ঠে হার্ড ল্যান্ডিং হয়েছে বিক্রমের, টুইট করে ল্যান্ডারের অবতরণের স্থান প্রকাশ নাসার

সম্প্রতি সৌদি আরবে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ ড্রোন হামলার পরে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এই পর্যায়ে তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে সারা বিশ্বে তেলের যোগান ব্যহত হচ্ছে। এই হামলার ফলে সারা বিশ্বব্যাপী তেলের বাজারে আঘাত হেনেছে, যার ফলে এই মুল্যবৃদ্ধি প্রত্যক্ষ করছে সকল মানুষ। ভারত তার তৈল আমদানির মোটের পঞ্চমাংশ নির্ভরশীল সৌদি আরবের ওপর। তবে এই বিষয়ে তৈল সরবরাহকারীদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ স্থাপন করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।