গত বছর ডিসেম্বরে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাসের পর সিএএ বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল হয়েছিল অসম। যার জেরে দুবার পরিকল্পনা করেও অসম সফর বাতিল করতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। সেই সময় ভারতে আসা জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে অসম সফরের কথা ছিল মোদীর। কিন্তু রাজ্যের উত্তপ্ত পরিস্থিতির কারণে তা বাতিল করেছিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর। সেই ঘটনার পর এই প্রথম অসম সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন: ফের গুগলি শীতের, সপ্তাহান্তে ফিরছে ঠান্ডা, রবিবার থেকে ফের নামবে তাপমাত্রা

সিএএ-এর পর প্রধানমন্ত্রীর উত্তর-পূর্ব ভারতের এই সফর ঘিরে তাই টানটান উত্তেজনা এখন সব ক্ষেত্রেই। এদিন অসমে নেমেই দুপুরে কোকরাঝাড়ে ঐতিহাসিক বোড়ো শান্তি চুক্তির উজ্জাপন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন মোদী। একটি জনসভাতেও ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এই অনুষ্ঠানে চার লক্ষেরও বেশি মানুষ অংশ নেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: শনিবার ভোট রাজধানীতে, তার আগেই ঘুষ নিতে গিয়ে সিবিআই জালে সিসোদিয়া ঘনিষ্ঠ আধিকারিক

কয়েকদিন আগেই গত ২৭ জানুয়ারি দিল্লিতে স্বাক্ষরিত হয় ঐতিহাসিক বোড়ো শান্তি চুক্তি। এরপরেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দাবি করেন, ১৯৮৬ সাল থেকে চলা অসমের অশান্তি ও বিচ্ছিন্নতাবাদ শেষ হবে। কেন্দ্র নিষিদ্ধ সংগঠনের দলগুলির প্রতিনিধিদের সঙ্গে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনেয়াল। পৃথক বোড়োল্যান্ড রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটির সংগঠনের মূল দাবি থেকে সরে আসার কথা সংগঠনগুলি মেনে নেওয়ায় এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর ঝটিকা সফরের কয়েঘণ্টা আগেই অসমের রাজধানী গুয়াহাটিতে মিলল দুটি ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস। আইইডি দুটি নিষ্ক্রিয় করেছে অসম পুলিশ।  গ্রেফতার করা হয়েছে সন্দেহভাজন দুই ব্যক্তিকেও।