আম জনতার কাছে ঋষি কাপুরে ছিলেন হার্টথ্রব। সিলভার স্ক্রিনে তাঁর চকোলেট বয় ইমেজ বয়সের বাধা টপকে বহু মহিলাকেই কাবু করেছে। ঋষি কাপুরের মৃত্যুর পর সেই প্রসঙ্গই আবারও মনে করেছিলেন দিনের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোশ্যাল মিডিয়া শোকবার্তায় তিনি বলেছিলেন বহুমুখী, স্নেহময় আর প্রাণবন্ত-- এটাই ছিল ঋষি কাপুরের প্রধান পরিচয়। অসম্ভব প্রতিভাময় এক অভিনেতা ছিলেন ঋষি। গোটা দেশ তাঁর প্রতিভার কথা মনে রাখবে বলেও মন্তব্য করেছেন প্রাধানমন্ত্রী। পাশাপাশি প্রয়াত অভিনেতা ঋষি কাপুরের পরিবার ও অনুগামীদের সমবেদনা জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। 

 

শোক বার্তায় প্রধানমন্ত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় ঋষি কাপুরের সক্রিয়তার কথাও উল্লেখ করেছেন। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভারতীয় চলচ্চিত্র থেকে শুরু করে রাজনীতি ও সামাজিক অবস্থা নিয়ে একাধিকবার মন্তব্য করেছেন ঋষি কাপুর। সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন শুধু চলচ্চিত্র নয় দেশের অগ্রগতি নিয়েই আগ্রহী ছিলেন ঋষি কাপুর। প্রয়াত অভিনেতার আত্মার শান্তি কামনাও করেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃ ভারতীয় সিনেমার জন্য ভয়ঙ্কর সপ্তাহ, ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ রাহুলের ...

আরও পড়ুনঃ নারী প্রধান ছবিতে অভিনয় করতেন অম্লানবদনে, চলে গেলেন বলিউডের 'ভদ্র প্রেমিক' ...

ববি থেকে চাঁদনী একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছিলেন ঋষি। শ্রী ৪২০ ছবিতেই প্রথম সিলভার স্ক্রিনে পা রাখেন তিনি। বিখ্যাত গান প্যার হুয়া একরার হুয়া-র যে ছোট্ট দুটি বাচ্চাকে দেখা গিয়েছিলেন তাদেরই একজন ঋষি কাপুর।