হিমাচল প্রদেশে দশেরা উপলক্ষ্যে হাজির হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী, লক্ষ্য বিধানসভা ভোট, বলছেন বিশেষজ্ঞরা

| Oct 04 2022, 03:56 PM IST

হিমাচল প্রদেশে দশেরা উপলক্ষ্যে হাজির হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী, লক্ষ্য বিধানসভা ভোট, বলছেন বিশেষজ্ঞরা
হিমাচল প্রদেশে দশেরা উপলক্ষ্যে হাজির হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী, লক্ষ্য বিধানসভা ভোট, বলছেন বিশেষজ্ঞরা
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

দশেরা উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে এখন হিমাচল জুড়ে ভরপুর উৎসাহ, উদ্দীপনা। মোদীর সফরকে বিশেষ করে তুলতে প্রশাসনিক কর্তাদের সমস্ত জরুরি নির্দেশ দিয়ে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী জয় রাম ঠাকুর। 
 

হিমাচল প্রদেশের দশেরা উদযাপনে অংশ নেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই উদযাপনের সাথে সাথে কুলুর বিখ্যাত রথযাত্রাতেও অংশ নেবেন নমো। দশেরা উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে এখন হিমাচল জুড়ে ভরপুর উৎসাহ, উদ্দীপনা। মোদীর সফরকে বিশেষ করে তুলতে প্রশাসনিক কর্তাদের সমস্ত জরুরি নির্দেশ দিয়ে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী জয় রাম ঠাকুর। তিনি নিজে বিলাসপুরে গৃহীত ব্যবস্থাগুলি খতিয়ে দেখেছেন বলে খবর। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের মাধ্যমে বিলাসপুরে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স (AIIMS)-এর উদ্বোধন করবেন নরেন্দ্র মোদী, ভাষণ দেবেন একটি জনসভাতেও। 

এইমস ছাড়াও বান্দলায় হাইড্রো ইঞ্জিনিয়ারি কলেজও উদ্বোধন করবেন নরেন্দ্র মোদী। নালাগড়ে একটি মেডিক্যাল ইকুইপমেন্ট পার্ক এবং পিঞ্জোর থেকে নালাগড় পর্যন্ত চার লেনের প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনা হবে তাঁর হাত ধরেই। প্রধানমন্ত্রীর সফরের জন্য বিলাসপুর এবং সংলগ্ন এলাকার রাস্তাগুলিতে প্রচণ্ড যানজট তৈরির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। আঞ্চলিক মানুষজন যাতে অসুবিধার সম্মুখীন না হন, সেই দিকটি মাথায় রেখে স্থানীয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী জয় রাম ঠাকুর। যানবাহন চলাচলে যাতে বাধা সৃষ্টি না হয়, সেজন্য রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে যথাযথ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, তার সাথে সাথে পর্যাপ্ত পার্কিং ব্যবস্থা রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

Subscribe to get breaking news alerts


মোদীর বিলাসপুর সফরের আগে রবিবার হিমাচল প্রদেশ সফর করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে.পি.নাড্ডা। উনায় দলীয় কার্যালয় উদ্বোধন করেন তিনি। প্রত্যেক রাজ্যে এবং প্রতিটি জেলায় একটি করে পদ্ম শিবিরের সদর দফতর থাকা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেন তিনি। নাড্ডার বক্তব্য, প্রত্যেক রাজ্যে একটি করে দলীয় কার্যালয় থাকলে, দলের কর্মীদের মনোবল বৃদ্ধি পাবে। 

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা অবশ্য বলছেন যে, আসন্ন ভোটের কথা ভেবেই প্রধানমন্ত্রীর হিমাচল সফরের এই উদ্যোগ। ৬১ আসন বিশিষ্ট হিমাচল প্রদেশে বিধানসভায় গেরুয়া দলের বিধায়ক সংখ্যা ৪৭। কংগ্রেসের আসন সংখ্যা ২০। ১টি আসন রয়েছে বামেদের। গত লোকসভা নির্বাচনে হিমাচলে ২ আসনেই জয়ী হয়েছিল কংগ্রেস। এই পরিস্থিতিতে আসন্ন হিমাচল বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইতে শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে হারাতে বিজেপিকে হাড্ডাহাড্ডি টক্করের সামনে পড়তে হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন-
মুলায়ম সিংহ যাদবের শারীরিক অবস্থা সংকটজনক , মেদান্ত হাসপাতালের অঙ্কোলজি বিভাগে তিনি চিকিৎসাধীন
আইসিইউতে ভর্তি মুলায়ম, অখিলেশকে সবরকম সাহায্যের বার্তা প্রধানমন্ত্রী মোদীর
জাতির জনকের সামনে নতজানু দেশ, গান্ধী জয়ন্তীতে প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ তাবড় নেতাদের শ্রদ্ধার্ঘ্য

Read more Articles on
null