করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শুরু করে লকডাউন-- প্রতিটি ইস্যুতেই কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনায় প্রথম সারিতে রয়েছেন রাহুল গান্ধী। প্রথম থেকেই রাহুল হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে প্রবল ক্ষতিগ্রস্ত হবে দেশের অর্থনীতি। আর লকডাউনের প্রথম থেকেই তিনি প্রবাসী শ্রমিকদের পক্ষ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধতে শুরু করেছিলেন। আনলক পর্ব শুরু হওয়ার পরেও সোশ্যাল মিডিয়ার যুদ্ধে বিরতি দেননি রাহুল গান্ধী। প্রায় প্রতিদিনই তিনি তীব্র সমালোচনা করে আসছেন কেন্দ্রের মোদী সরকার। এবার রাহুলের হাতিয়ার বিখ্যাত বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাই। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় এদিন রাহুল গান্ধী আলবার্ট আইনস্টাইনের উক্তি তুলে এনে নিশানা করেন মোদী সরকারকে।  তিনি বলেন 'লকডাউন প্রমাণ করেছে অজ্ঞতার চেয়ে অহঙ্কার বেশি বিপজ্জনক'। দিন কয়েক আগেই মার্কিন অধ্যাপকের সঙ্গে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার সময় রাহুল মোদী সরকারকে একনায়কতন্ত্রী সরকার বলে আখ্যা দিয়েছিলেন। এদিন তার থেকেই এক ধাপ এগিয়ে গিয়ে মোদী সরকারকে অহংকারী বলে আখ্যা দিয়েছেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। 

ট্রাম্পের দেশে ১৮১ পাতার হাসপাতালের বিল, অঙ্ক দেখে মাথা ঘুরে গেল করোনা রোগীর ...

করোনা সংকটের মধ্যেই মুম্বইয়ে শুরু লোকাল ট্রেন পরিষেবা, এই রাজ্যে কবে থেকে শুরু হবে ...

রাজ্যের করোনা সংকট কাটিয়ে উঠে মেয়ের বিয়ে দিলেন বিজয়ন, কেমন ছিল বিয়ের আসর ...

এদিন কিন্তু কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী এখনানেই শেষ করেননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁরা বার্তার সঙ্গেই তিনি অটোমেশনে তৈরি করা একটি গ্রাফ চার্টও দিয়েছেন । আর সেই চার্টের মাধ্যমে রাহুল বলেছেন, লকডাউনের কারণে ভেঙে পড়েছে দেশের অর্থনীতি। আর বেড়ে গেছে সংক্রমণের পরিমাণ। বিশেষজ্ঞদের মতে তিনি বলতে চেয়েছেন, লকডাউন ছিল অপরিকল্পিত। আর সেই কারণে বেড়েগেছে আক্রান্তের সংখ্যা। আর একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নেমে গেছে দেশের আর্থিক বৃদ্ধির পরিমান। মার্ত মাস থেকে পাওয়া পরিসংখ্যন তুলে ধরেছেন তিনি।


 দিন কয়েক আগে শিল্পপতি রাজীব বাজাজের সঙ্গে করোনাভাইরাস নিয়ে আলোচনার সময় রাহুল গান্ধী অপরিকল্পত লকডাউন বলে তীব্র সমালোচনা করেছিলেন। সেই সময় শিল্পপতি বাজাজও মোদী সরকারের লকডাউনকে কটাক্ষ করে বলেছিলেন এতে ছিদ্র থাকায় ফল হয়েছে মারাত্মক। এদিন আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই প্রসঙ্গই তুলে আনলেন রাহুল গান্ধী।