৭০ বছরের মাইকেল ফ্লোর করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলে গত ৪ঠা মার্চ। হাসপাতালের কর্তৃব্যরত নার্সরা ধরেই নিয়েছিলেন তিনি বাঁচবেন না। সেইমত বৃদ্ধের পরিবারকে খবরও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেসব আশঙ্কা দূরে সরিয়ে রেখে সুস্থ হয়ে ওঠেন  ফ্লোর। গত ৫ মে ৬২ দিন পর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া কিন্তু কিন্তু সেই সময় তাঁকে ১৮১ পাতার একটি লম্বা বিল ধরানো হয়েছিল। বিলে টাকার অঙ্ক দেখে  রীতিমত হকচকিয়ে গিয়েছিলেন ফ্লোর? 

৬২ দিনে হাসপাতালের খরচ বাবদ ফ্লোরের কাছ থেকে দাবি করা হয়েছে ১১ লক্ষ মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় কোটি টাকারও বেশি।  কী কী খাতে কত টাকা নেওয়া হয়েছে তাও  পরিষ্কারভাবে লেখা রয়েছে বিলে। ১৮১ পাতার বিলে বলা হয়েছে, পরিচর্যার খরচ ৯৭৩৬৪২ মার্কিন ডলার। যে ঘরে ফ্লোর ছিলেন সেটি ৪২ দিন ধরে জীবানুমুক্ত করার খরচ ৪০৯,০০০ ডলার। ২৯ দিনের ভেন্টিলেটারের খচর হিসেবে ধরা হয়েছে ৪২০০০ ডরাল। যে দুদিন ফ্লোরের অবস্থা খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল সেই দুদিনের চিকিৎসার জন্য ধরা হয়েছে ১০০,০০০ ডলার। বিলের মোট অঙ্ক ১১ লক্ষ ২২ হাজার ৫০১ মার্কিন ডলার। আর হাসপাতাল থেকে ছুটির সময় এই বিল দেখে রীতিমত হতবাক ফ্লোর ও তাঁর পরিবার। 

একমাত্র 'করোনা অ্যাম্বলেন্স' চালকের মৃত্যু, মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় শোকস্তব্ধ কোলাঘাট

করোনা আক্রান্তের পুরনো রেকর্ড ভেঙে চুরমার, বিশ্বের ক্রম তালিকায় ৪ নম্বরে ভারত .

মন কি বাত অনুষ্ঠানে দেশের 'মনের কথা' শুনবেন, 'করোনা লড়াই'এর জন্য চাইলেন পরামর্শ ...

ফ্লোরের কথায়,  আমেরিকায় প্রবীণ নাগরিকদের জন্য যে সরকারি বিমা প্রকল্প রয়েছে তিনি তার আওতায় পড়েন। তাই বিলের সব টাকা তাঁকে দিতে হয়নি। বিমা কোম্পানিই টাকা দিয়ে দেবে। । কিন্তু তাঁর অভিযোগ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য পরিষেবা বিশ্বের ব্যয় বহুল দেশগুলির মধ্যে অন্যতম। তবে তাঁর আক্ষেপ এই বিশাল অঙ্কের বিলের টাকা মেটাতে চাপ পড়বে দেশের করদাতাদের ওপর। যা নিয়ে রয়েছে তাঁর অনুকম্পাও। তিনি বলেন এটা ঠিক নয়। তাঁর জন্য প্রচুর টাকা খরচ হয়ে গেছে। 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যুপুরীর চেহারা নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত দেশগুলির ক্রম তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে ট্রাম্পের দেশ।  ২১ লক্ষেরও বেশি। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষেরও বেশি মানুষের। করোনা মহামারী যথেষ্ট প্রভাব ফেলেছে দেশটির অর্থনীতিতে। মার্কিন কংগ্রেস করোনা রোগীদের চিকিৎসার সুবিধার্থে হাসপাতাল ও বেসরকারি বিমা সংস্থাগুলির জন্য ১০০ মিলিয়ন ডরাল বাজেটের অন্তর্ভূক্ত করেছে।