তিরিশ জানুয়ারি থেকেই দেশ করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছিল কেরলে। আক্রান্ত ছাত্র চিন ফেরত। দেশের স্বাস্থ্য পরিষেবায় সুস্থ সেই ছাত্র। কিন্তু বেশ কয়েক দিন ধরে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগ জনকভাবে বেড়েছে। তিশরা জুন দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ছাড়িয়েছে। করোনা আক্রান্তের ক্রম তালিকায় সাত নম্বরে উঠে এসেছে ভারত। পিছনে ফেলে দিয়েছেন জার্মানি ও চিনকে। 

ভয়ঙ্কর এই পরিস্থিতির সামনে দাঁড়িয়ে কিছুটা হলেও স্বস্তি দিচ্ছে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য। তথ্যে বলা হয়েছে গত চার মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা লড়াইয়ে ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছেন করোনা আক্রান্ত লক্ষাধিক মানুষ। স্বাস্থ্য মন্ত্রেক দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এখনও পর্যন্ত এই দেশে সুস্থ হয়েছেন ১লক্ষ ৩০৩ জন। তেশরা জুনই সুস্থ হয়েছেন ৪৭৭৬ জন। 

করোনা আক্রান্তের  মত সুস্থ হওয়ার তালিকাতেও শীর্ষ স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এই রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৩১ হাজারেরও বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। আমাদের রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৬১৬৮ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ২৪১০ জন। ক্রমতালিকায় প্রথম দিকে থাকা তামিলনাড়ু ও দিল্লিতে সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ও ৯ হাজারেরও বেশি মানুষ। গুজরাতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ হাজারেও বেশি। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার
 মানুষের সংখ্যা ১১ হাজারেরও বেশি। 

পিএম কোয়ারস ফান্ড থেকে প্রবাসী শ্রমিকদের ১০ হাজার টাকা দেওয়ার আবেদন মমতার, সমালোচনা রাহুলের ...

শেষ ১৬ দিনে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা লক্ষাধিক, আনলক আরও বিপদ ডেকে আনবে কি ...

অভিনব মাস্ক তৈরি ব্যাংককের বিউটি ক্লিনিকে, ব্যবহারে অটুট থাকবে সৌন্দর্য ...

বর্তমানে দেশে করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা ২,০৭,৬১৫। সেখানে সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা ১,০০,৩০৩। বিশেষজ্ঞদের মতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের অর্ধেকই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পেরেছেন।  যা কিছুটা হলেও স্বস্তি দিয়েছে দেশের মানুষকে। কারণ আমেরিকা ইতালির মত দেশগুলি করোনা সংক্রমণের কারণে রীতিমত মৃত্যুপুরীর চেহারা নিয়েছিল।