কেরলে শবরীমালা মন্দিরের দরজা শনিবার অর্থআৎ আজই খুলে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। আগামি ২ মাস মন্দির দর্শনের জন্য পুণ্যার্থীরা আসতে পারবেন। আজ থেকে মণ্ডলা পুজোও শুরু হবে এখানে। মহিলাদের প্রবেশ এবং তাদের সুরক্ষার দিকটি বিচার করে প্রায় আড়াই হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এখানে। বৃহস্পতিবার দেশের শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তের পর মহিলাদের কাছে শবরীমালা মন্দিরে প্রবেশের অধিকার রয়েছে। 

'বাড়িতে স্ত্রী নেই, এসে রান্না করে দাও', মাঝরাতে ছাত্রীকে ফোনে অদ্ভুত আবদার অধ্যাপকের

প্রসঙ্গত, শবরীমালা মামলা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট কী রায় দেয় সেদিকে তাকিয়েছিল গোটা দেশ। সব বয়সের মহিলাদের শবরীমালায় ঢুকতে দেওয়া নিয়ে রিভিউ পিটিশনের শুনানি করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের ৫ বিচারপতি। বৃহস্পতিবারই শবরীমালা মামলা নিয়ে নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

বদলির নির্দেশ পেয়ে ষাট কিলোমিটার দৌড়, মাঝপথেই জ্ঞান হারালেন পুলিশকর্মী

৭ বিচারপতির বৃহত্তর বে়ঞ্চে শবরীমালা মামলা পাঠানো হয়। জানা যায়, শবরীমালা নিয়ে ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ ঐক্যমতে পৌঁছতে পারেনি। ২ বিচারপতি রায় নিয়ে সহমত ছিলেন না। সে কারণে মামলা পাঠান হয় বৃহত্তর বেঞ্চে। 

চা খেলেই খসাতে হবে ১৫ টাকা, দুরন্ত- রাজধানীতে লাফিয়ে বাড়ল খাবারের দাম

সুপ্রিম কোর্টের নতুন রায় না আসা পর্যন্ত আগের রায়ই বহাল থাকবে। এই মামলায় প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ছাড়াও ছিলেন বিচারপতি এরএফ নরিম্যান, এএম খানউইলকার, ডিওয়াই চন্দ্রচূড় ও ইন্দু মালহোত্রা।