প্রাক্তন  অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির প্রয়াণে গভীর শোক প্রকাশ করলেন কংগ্রেসের অন্তবর্তীকালীন সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী। এদিন প্রয়াত প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির স্ত্রী সঙ্গীতা জেটলিকে চিঠি লেখেন সনিয়া গান্ধী। দেখাও করেন সঙ্গীতা জেটলির সঙ্গে। সেইসময়ে পাশে ছিলেন রাহুল গান্ধীও। 

দলীয় রাজনীতির বাইরে এক অন্য অরুণ, একজন 'আল্টিমেট ব্যাকরুম স্ট্র্যাটেজিস্ট'

চিঠিতে সনিয়া লেখেন, রাজনীতির বাইরেও তাঁর খুব ভাল বন্ধু ছিলেন অরুণ জেটলি। তবে শুধু চিঠিই নয়, তাঁর বাড়িতে গিয়ে অরুণ জেটলির স্ত্রী সঙ্গীতা জেটলির সঙ্গেও দেখা করেন সনিয়া। তাঁকে সনিয়া জানান, শোক প্রকাশের ভাষা হারিয়েছেন তিনি। সঙ্গীতার যন্ত্রণা স্পষ্টতই অনুভব করতে পারছেন সনিয়া। 

অস্ত গেলেন অরুণ, পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে আজ

সঙ্গীতা জেটলি-কে লেখা চিঠিতে সনিয়া গান্ধী লেখেন,'তোমার স্বামীর অকাল প্রয়াণে আমি গভীরভাবে শোকাহত।' তিনি আরও বলেন, জেটলি এমন একজন মানুষ ছিলেন যিনি রাজনীতির পাশাপাশি রাজনীতির বাইরেও একইরকম আকর্ষণীয় একজন ব্যক্তিত্ব। জেটলি এমন একজন মানুষ ছিলেন, যাঁর জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তাঁর রাজনৈতিক দলের বাইরের মানুষের সঙ্গেও ছিল অবাধ বিচরণ। 

পাক-হামলায় শহিদ জলপাইগুড়ির রাজীব থাপা, তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে ভারতীয় সেনাবাহিনী

সনিয়া আরও বলেন, তাঁর তীক্ষ্ম বুদ্ধিমত্তা, দূরদর্শিতা এবং তাঁর জ্ঞাপনের দক্ষতার জেরে সকলের কাছেই প্রশংসিত হয়েছেন। রাজ্যসভায় বিরোধী দলের নেতা এবং সুপ্রিম কোর্টের বর্ষীয়ান একজন অ্যাডভোকেট হিসাবেও তিনি নিজের দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন বলে জানান সনিয়া। তিনি আরও বলেন, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত নিজের বিরল রোগের সঙ্গে লড়াই করেছেন এত কম বয়সে তাঁর অকাল প্রয়াণে গভীরভাবে শোক প্রকাশ করেন সনিয়া।