Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মুম্বই হামলার মতো ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ছক, ধৃত জঙ্গিদের প্ল্যানিং ফাঁস

ধৃতদের জবানবন্দিতে উঠে এসেছে মারাত্মক তথ্য। আধিকারিকদের দাবি, ১৯৯৩ সালের মুম্বই হামলার মতো ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ছক কষেছিল তারা। 

Terror module busted by Delhi Police was planning attacks like 1993 Bombay blasts  bpsb
Author
Kolkata, First Published Sep 16, 2021, 3:33 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের (Delhi Police Special Cell) হাতে ধৃত জঙ্গিদের (Pakistan-sponsored terror module) প্ল্যানিং ফাঁস। ১৯৯৩ সালের মুম্বই হামলার (1993 Bombay blast-like attack) মতো ধারাবাহিক বিস্ফোরণের ছক কষেছিল এই জঙ্গিরা। এই মতো পরিকল্পনা করেই কাজ এগোচ্ছিল তারা বলে জানা গিয়েছে। তদন্তকারী আধিকারিকরা জানিয়েছেন দেশের বিভিন্ন জায়গায় একসঙ্গে বিস্ফোরণের ছক কষেছিল ধৃত জঙ্গিরা। 

Terror module busted by Delhi Police was planning attacks like 1993 Bombay blasts  bpsb

সূত্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গেছে যে তারা ১৯৯৩ সালের বিস্ফোরণের আদলে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল। ধৃত জঙ্গিদের কাছ থেকে পুলিশ প্রায় দেড় কেজি আরডিএক্স উদ্ধার করেছে। ধৃতরা টেরর মডিউলের হয়ে কাজ করে, এমন বেশ কয়েকজনের নাম ফাঁস করেছে। পুলিশের দাবি এর ভিত্তিতে বড়সড় চক্রকে গ্রেফতার করা যাবে। 

দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের  হাতে মঙ্গলবার গ্রেফতার হয় ছয় জন। এরা পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বলে পুলিশ সূত্রে খবর। দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেলের আধিকারিকদের সামনে ধৃতদের জবানবন্দিতে উঠে আসে মারাত্মক তথ্য। আধিকারিকদের দাবি, দাউদ ইব্রাহিমের ভাইয়ের সাথে দিল্লি, উত্তর প্রদেশ ও মহারাষ্ট্রে উৎসবের মরসুমে হামলার পরিকল্পনা করছিল আইএসআই। 

Terror module busted by Delhi Police was planning attacks like 1993 Bombay blasts  bpsb

দেশে নাশকতা চালানোর জন্য নতুন করে সক্রিয় হয়ে উঠছে কুখ্যাত ডন দাউদ ইব্রাহিম। এই বিষয়টাই ভাবাচ্ছে পুলিশ আধিকারিকদের। পুলিশ কমিশনার (স্পেশাল সেল) নীরজ ঠাকুর বলেন, ধৃতরা হল মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা জান মহম্মদ শেখ (৪৭), জামিয়া নগরের বাসিন্দা ওসামা ওরফে সামি (২২), রায়বরেলির বাসিন্দা মুলচাঁদ ওরফে সাজু (৪৭),এলাহাবাদের বাসিন্দা জিশান কামার (২৮), বাহরাইচের বাসিন্দা মোহাম্মদ আবু বকর (২৩) এবং লখনউয়ের বাসিন্দা মহম্মদ আমির জাভেদ (৩১)।

দিল্লি পুলিশ আরও জানিয়েছে এদের মধ্যে দুজন অভিযুক্ত, ওসামা এবং জিশান এই বছর পাকিস্তানে প্রশিক্ষণ নেয়। আইএসআইয়ের নির্দেশে দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় রেইকি করে। নাশকতা চালানোর জন্য বিভিন্ন জায়গা চিহ্নিতও করা হয়। ধৃতরা দাউদ ইব্রাহিমের ভাই আনিস ইব্রাহিমের ঘনিষ্ঠ আন্ডারওয়ার্ল্ড অপারেটিভ সমীরের সাথে যোগাযোগ করে। দেশের বিভিন্ন স্থানে আইইডি, অত্যাধুনিক অস্ত্র এবং গ্রেনেড সরবরাহ করার জন্য কাজ শুরু করেছিল। 

SCO Summit 2021: ইমরান খানের সামনেই পাকিস্তানের কফিনে পেরেক পুঁততে তৈরি নরেন্দ্র মোদী

ভারতে রয়েছে পাকিস্তান নামের একটি গ্রাম, বাসিন্দারা সবাই হিন্দু, জানতেন কি

সারা দেশের রুপি, অথচ বাংলায় ভারতীয় মুদ্রার নাম টাকা, জানেন কেন এই নামকরণ

ধৃতদের জবানবন্দী থেকে জানা গিয়েছে একটি স্লিপার সেল অপারেটিভের কাছ থেকে অত্যাধুনিক RDX-IED, গ্রেনেড, পিস্তল এবং কার্তুজ পায় তারা। সেগুলিকে উত্তরপ্রদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios