মহিলাদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা ইসলামের পরিপন্থী, কোন পুরুষ কি আর বেঁচে নেই? প্রশ্ন তুলে বিতর্কে জামে মসজিদের শাহী ইমাম

| Dec 04 2022, 08:07 PM IST

Women Voter West Bengal
মহিলাদের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা ইসলামের পরিপন্থী, কোন পুরুষ কি আর বেঁচে নেই? প্রশ্ন তুলে বিতর্কে জামে মসজিদের শাহী ইমাম
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম ধাপে ৮৯টি আসনে ভোট হয়েছে। এই ৮৯টি আসনে মোট ৭৮৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন, যার মধ্যে ৭০ জন মহিলা।

সোমবার গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোট হবে। এই ভোটের আগে আহমেদাবাদের জামে মসজিদের শাহী ইমাম এক অদ্ভুত বক্তব্য দিয়েছেন। নির্বাচনে নারীদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন শাহী ইমাম শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকী। ইমাম বলেন, নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো কোনো পুরুষ বাকি নেই? তিনি আরো বলেন, যারা মুসলিম মহিলাদের নির্বাচনী টিকিট দিচ্ছেন তারা ইসলাম বিরোধী এবং তারা এই ধর্মকে দুর্বল করছে।

শাহী ইমাম শাব্বির আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, 'আপনি যদি ইসলামের বিষয়টি নিয়ে আসেন তবে আমি আপনাকে বলতে চাই যে আপনি নমাজের সময় একজন মহিলাকেও দেখেননি। ইসলামের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল নামাজ। মহিলাদের এভাবে মানুষের সামনে আসাটা যদি বৈধ হত, তাহলে তাদেরকে মসজিদ থেকে আটকানো হতো না। ইসলামে নারীর স্থান আছে বলে মসজিদ থেকে বের করে দেয়া হয়েছিল।

Subscribe to get breaking news alerts

তিনি আরও বলেন, 'যারা নারীদের টিকিট দেয়, তারা ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে। তারা ইসলামের বিরুদ্ধে কাজ করে। তোমার কি পুরুষ নেই যে তুমি নারী আনছ? এতে আমাদের ধর্ম দুর্বল হবে। এটি দুর্বল হবে কারণ আপনি কর্ণাটকে হিজাব ইস্যুটি দেখেছেন, এটি নিয়ে প্রচুর হৈচৈ হয়েছিল। এখন আপনি যদি বাধ্য না করে আপনার নারীকে এমপি, এমএলএ বানাও, তাহলে তার মানে হবে আমরা হিজাবকে নিরাপদ রাখতে পারব না।

ইমাম আরও বলেন, 'এমন পরিস্থিতিতে আমরা হিজাবের মতো বিষয় তুলতে পারব না। তখন বলা হবে আপনার মহিলারা এখন এসেম্বলি হলে আসছেন, সংসদে বসেছেন, পৌরসভার বোর্ডে বসেছেন, মঞ্চে বসে আবেদন করছেন। তিনি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলে তাকে ঘরে ঘরে যেতে হবে, হিন্দু বাড়ি হোক বা মুসলমানের বাড়ি। ইসলামে নারীর কণ্ঠও নারী। এজন্য আমি এর বিরোধিতা করছি। আমি বলি, কোনো আসন থেকে শুধু নারীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবে এমন আইন থাকলে সেখান থেকে টিকিট দিলেই বোঝা যায়।

গুজরাট নির্বাচনে কতজন মহিলা প্রার্থী?

গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম ধাপে ৮৯টি আসনে ভোট হয়েছে। এই ৮৯টি আসনে মোট ৭৮৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন, যার মধ্যে ৭০ জন মহিলা। দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে মোট ৯৩টি আসনে ভোট হবে। এই ৯৩টি আসনে মোট ৮৩৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে মোট ৬৯ জন মহিলাও নিজেদের লাক ট্রাই করছেন।