জলবায়ুর পরিবর্তন আজ সমগ্র বিশ্বের কাছে একটা গুরুতর চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সমগ্র বিশ্বজুড়ে এই নিয়ে শুরু হয়েছে প্রতিবাদের ঝড়। তবে এবার এই প্রতিবাদে সামিল হল উত্তরাখণ্ডের কয়েকটি স্কুল এবং কলেজের ছাত্রছাত্রীরা। বৃষ্টি এবং মেঘের গর্জনকে উপেক্ষা করে শুক্রবার বিকেলে এক ঝাঁক পড়ুয়া জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে গান্ধী পার্কে একত্র হয়েছিল।

এদিন গান্ধী পার্কে সকল পড়ুয়ারা একত্র হয়ে ধর্মঘটে সামিল হন তারা। এই প্রতিবাদের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রিধিমা পান্ডে। বয়স তার মাত্র ১১ বছর। প্রসঙ্গত রিধিমা সম্প্রতি রাষ্ট্রসঙ্ঘে আয়োজিত ক্লাইমেট অ্যাকশন সামিটে আন্তর্জাতিক আবহাওয়া পরিবর্তন বিষয়ক কর্মী গ্রেটা থানবার্গের সঙ্গে এই বিষয়ে আলোচনা করে এসেছেন। 

আন্দোলনকারীদের মধ্যে স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি ছিলেন বেশ কয়েকটি এনজিও। আন্দোলনরত ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে এদিন ধরা ছিল একাধিক প্ল্যাকার্ড। যাতে পরিবেশ সংরক্ষণকারী একাধিক বার্তা প্রচার করা হয়েছিল। যার মধ্যে অন্যতম ছিল, হিমালয় আবর্জনা ফেলার স্থান নয়। আর কোনও প্ল্যানেট 'বি' নেই তাই প্ল্যানেট 'এ' অর্থাৎ পৃথিবীকে বাঁচানোর চেষ্টা করুন। হিমালয় বিক্রির জন্য নয়। 

আরও পড়ুন- মন্দিরে নিষিদ্ধ পশু-পাখির বলি, ঐতিহাসিক রায় দিল ত্রিপুরা হাইকোর্ট

আরও পড়ুম- উপত্যকায় দুই সন্দেহভাজনের উপস্থিতি, চলল গুলির লড়াই, তল্লাশি অভিযানে সেনাবাহিনী

আরও পড়ুন- মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মম হত্যাকাণ্ড, গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারালেন শিখ পুলিশ অফিসার

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে ডাক দিতে গিয়ে ধর্মঘটে অংশগ্রহণকারী স্কুল পড়ুয়াদের উদ্দেশে বলেন জলুবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে আরও বেশি করে আন্দোলনে যোগ দিতে। তিনি আরও বলেন, 'আমি এই প্রতিবাদ আন্দোলন আমার রাজ্য উত্তরাখণ্ড থেকেই শুরু করলাম। আমি সারা ভারত জুড়ে সকল শিশুদের আহ্বান জানাব ফলাফলের কথা চিন্তা না করেই এই আন্দোলনে যোগ দাও। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এর প্রভাব দেখতে হলে আমাদের স্থানীয় স্তরেই আন্দোলন শুরু করতে হবে।'