সোমবার ফ্রান্সে আয়োজিত জি৭ সম্মেলনে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভারত জি৭ সদস্য-ভুক্ত দেশ না হওয়া সত্ত্বেও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যান্যুয়েল মাঁকর-এর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যোগ দিয়েছেন এই সম্মেলনে। 

আরও পড়ুন- জি-৭ সম্মেলনে নরেন্দ্র মোদী, উঠে আসতে পারে কাশ্মীর প্রসঙ্গ

তবে জি৭ সামিটের পাশাপাশি আজ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার কথা রয়েছে তাঁর। কূটনৈতিক মহলের দাবি, কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে এদিন দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে আলোচনা হতে পারে। সেই সঙ্গে তাঁদের আলোচনায় উঠে আসতে দুই দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক এবং দ্বিপাক্ষিক বিষয়ও। 

প্রসঙ্গত এর আগে বারংবার কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। যদিও প্রথমবার তিনি জানিয়েছিলেন যে প্রধানমন্ত্রী মোদীই নাকি তাঁকে কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতার আর্জি জানিয়েছেন। পরে অবশ্য এই কথার চরম বিরোধীতা করা হয় কেন্দ্রের তরফে। সেসসময়ে আন্তর্জাতিক মহলে একটি চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছিল এই খবর। 

এসপিজি নিরাপত্তা পাবেন না মনমোহন সিং, সিদ্ধান্ত নিল মোদী সরকার

পরে অবশ্য আমেরিকার তরফে দাবি করা হয়েছিল যে, কাস্মীর ইস্যু আর তাদের বিবেচনার অধীনে নেই। দিন কয়েক আগে ফের কাশ্মীর ইস্যুতে মধ্যস্থতার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। শুধু তাই নয় একে 'বিস্ফোরক' বলেও দাবি করেছিলেন তিনি। তবে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ ধারা বাতিলের বিষয়টি ভারতের একান্ত আভ্যন্তরীণ বিষয় বলে মনে করা হলেও কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং কাশ্মীরে রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতারির বিষয়েও দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।