Asianet News Bangla

ভারতীয় সম্পদ ভেঙেগুঁড়িয়ে দিতে হবে, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানেও পাকিস্তানের টার্গেট ভারত

পাকিস্তানের টার্গেটে সেই ভারতই। পাকগুপ্তচর সংস্থা ভারতীয় সম্পত্তি ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছে পাক যোদ্ধা আর তালিবানদের। আফগানিস্তানে প্রচুর টাকা বিনিয়োগ করেছিল ভারত। 

Pakistani fighters Taliban militants have been ordered to destroy Indian infrastructure in Afghanistan says source BSM
Author
Kolkata, First Published Jul 18, 2021, 5:09 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তানেও পাকিস্তানের টার্গেট ভারত। একটি সূত্রের খবর আফগানিস্তানে গত কুড়ি বছর ধরে ভারত যেসব পরিকাঠামো আর বিল্ডিং তৈরি করেছে সেগুলিকে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই(ISI)। আফগানিস্তানে প্রচুর পাক-যোদ্ধা বা জিহাদি ইতিমধ্যেই প্রবেশ করেছে। তাঁরা আফগান সরকারের বিরোধিতা করে তালিবানদের পক্ষ নিয়েছে। পাক যোদ্ধাদের পাশাপাশি তালিবানদেরও ভারতীয় পরিকাঠামো ধ্বংস করার নির্দেশ দিয়েছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা। 

সবকিছু নিয়ে আলোচনায় প্রস্তুত, বাদল অধিবেশনের আগে সর্বদলীয় বৈঠকে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

সূত্রের খবর পাকিস্তানের প্রথম লক্ষ্যই হল তালিবান অধিকৃত এলাকায় ভারতীয় সম্পত্তির ক্ষতি করা। সূত্রের খবর ১০ হাজারেও বেশি পাকিস্তানি যোদ্ধা ইতিমধ্যেই আফগানিস্তানে প্রবেশ করেছে। তবে অনেক পাক যোদ্ধাই দীর্ঘ দিন ধরে আফগানিস্তানে তালিবানদের পক্ষ থেকে রণক্ষেত্রে উপস্থিত ছিল। তারা দীর্ঘ দিন ধরেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তথা মিত্র বাহিনীর বিপক্ষে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিল। 

সাবধান হাতে মাত্র আর একটা মাস, অগাস্টের শেষেই করোনাভাইরাসের তৃতীয় তরঙ্গ আসছে, বললেন বিজ্ঞানী

২০০১ সালে কাবুল থেরে তালিবানদের উৎখাতের পর ভারত আফগানিস্তানে বিনিয়োগ করতে শুরু করেছিল। সেখানের উন্নয়নের জন্য প্রায় ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যায় করেছে। ২১৮ কিলোমিটার রাস্তা তৈরি করেছে। তৈরি হচ্ছে একটি বাঁধও। আফগান সাংসদও ঢেলে সাজান হয়েছে। ২০১৫ সালে উদ্ধোধন করা হয়েছিল সেটির। সেগুলিকেই টার্গেট করতে বলেছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা। 

তালিবানদের মদত দিচ্ছে পাকিস্তান, আফগানিস্তানের অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ে হুশিয়ারি উপরাষ্ট্রপতির

তবে তালিবানদের প্রত্যাবর্তনেরপর ভারত আফগানিস্তান নিজেদের উপস্থিতি কতটা বাজায় রাখতে পারবে তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে এই বিষয়টি নিয়ে তালিবানরাও এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিশ্রুতি দেয়নি। অন্যদিকে কাবুল বিমানবন্দরের কাজ আর সেখানের পরিস্থিতি বেশ কয়েকটি দেশ নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। এই বিমানবন্দরেও ভারতীয়রা রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন। যদিও আফগানিস্তানের অধিকাংশ এলাকা থেকে ভারতীয়দের সরিয়ে আনা হয়েছে। ইতিমধ্যেই খালি করা হয়েছে কনস্যুলেট। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios