সবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে সুর চড়াচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু মোদীর নাম মুখে নিতেই হাতে কারেন্টের ঝটকা খেলেন পাকিস্তানের মন্ত্রী। যে ভিডিও দেখে এখন হেসে খুন সোশ্যাল মিডিয়া। 

শুক্রবার এমনই কাণ্ড ঘটেছে পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদের সঙ্গে। গোটা পাকিস্তানে কাশ্মীরিদের সঙ্গে সহমর্মিতা দেখাতে শুক্রবার 'কাশ্মীর সংহতি দিবস' হিসেবে  এক ঘণ্টা বরাদ্দ করা হয়েছিল। যে ভিডিওটি প্রকাশ্যে এসেছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানের কোনও একটি জায়গায় কাশ্মীর নিয়ে বক্তব্য রাখছিলেন রশিদ। বরাবরই গরমাগরম বক্তব্য রাখার জন্য বেশ নামডাকও রয়েছে তাঁর। এ হেন পাক মন্ত্রী নিজস্ব কায়দাতেই আস্তে আস্তে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে সুর চড়াচ্ছিলেন পাক মন্ত্রী। 

আরও পড়ুন- মুখ থুবড়ে পড়ল কাশ্মীর সংহতি ঘন্টা, দেশের মানুষের কাছেই চরম ধাক্কা খেল ইসলামাবাদ

আরও পড়ুন- অধিকৃত কাশ্মীরে ভুয়ো খবরের পাক কারখানা, কীভাবে তৈরি হচ্ছে ফেক নিউজ

রশিদ বলেন, 'মোদীর কী উদ্দেশ্য, সে সম্পর্কে আমরা সম্পূর্ণ ওয়াকিবহল।' কিন্তু যেই না রশিদ এই মন্তব্য করেছেন, সঙ্গে সঙ্গে তাঁর ডান হাতে বিদ্যুতের ঝটকা লাগে। ঘাবড়ে গিয়ে আঁতকে ওঠেন পাক মন্ত্রী। বক্তব্যও থামিয়ে দেন তিনি। একটু সামলে নিয়ে বিষয়টি হাল্কা করতে এর পর তিনি বলেন, 'কারেন্ট লেগে গিয়েছে। যাই হোক কোনও বিষয় নয়, কোনওভাবে কারেন্ট লেগে গিয়েছে। মোদী কোনওভাবেই এই সভা বাতিল করতে পারবেন না।' পাক মন্ত্রীর কথা শুনে হেসে ওঠে জনতাও। 

 

 

বৃহস্পতিবারই এই রশিদ দাবি করেছিলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারত এবং পাকিস্তান, দু' দেশকেই ঠকাচ্ছেন। আবার ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পরে কাশ্মীরিদের সঙ্গে সহমর্মিতা দেখিয়ে সমঝোতা এবং থর এক্সপ্রেস বন্ধ করার ঘোষণা করেছিলেন পাকিস্তানের এই মন্ত্রী।