মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কয়েক সেকেন্ডের সিদ্ধান্তে তালিবানের সঙ্গে মার্কিন মধ্যস্থতায় শান্তি বৈঠক বাতিল হয়ে গিয়েছিল। পরে অবশ্য আফগান বংশোদ্ভূত মার্কিন দূত জালমে খালিজাদে-র মধ্যস্থতায় তালিবানের সঙ্গে ফের শান্তি বৈঠক শুরু হয় পাক রাজধানী ইসলামাবাদে। হাতে নাতে তার সুফল পেল ভারত। মার্কিন মধ্যস্থতায় ১১ জন তালিবানি জঙ্গির বিনিময়ে মুক্তি পেলেন ৩ ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ার। এরপরই রাজনৈতিক মহলে আলোচনা শুরু হয়েছে হাউডি মোদীতে নরেন্দ্র মোদীর প্রচারের কী রিটার্ণ গিফট দিলেন ট্রাম্প?

গত  বছর মে মাসে আফগানিস্তানের বাঘনাল প্রদেশের একটি  পাওয়ার প্ল্যান্টে কাজ করার সময় ওই তিনজন-সহ মোট সাতজন ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারকে বন্দি করেছিল তারা। তার মধ্যে একজনকে চলতি বছরের মার্চে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল। তবে আফগান প্রশাসন বা ভারত সরকার এই বিষয়ে এখনও কোনও বিবৃতি দেয়নি। খবরটি প্রকাশ্যে এনেছে তালিবানরাই। ভারতের বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ার মুক্তির বিষয়ে আফগান প্রশাসনের সঙ্গে তারা যোগাযোগ রাখছে।

রবিবার ভোরে তালিবানের সঙ্গে আফগান প্রশাসনের বন্দি বিনিময় হয়। কিন্তু ঠিক কোথায় এই বন্দি বিনিময় হয়েছে তা জানা যায়নি। তবে এই তিন ভারতীয়ের বিনিময়ে আফগান প্রশাসনও ১১ জন তালিবান জঙ্গিকে মুক্তি দিয়েছে। এদের মধ্যে শেখ আবদুল রহিম এবং মৌলবি আবদুর রশিদ-এর মতো বেশ কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা আছে। ২০০১ সালে তালিবানি শাসনের সময় তারা যথাক্রমে আফগানিস্তানের কুনার ও মিনরোজ প্রদেশের গভর্নর হিসেবে নিযুক্ত ছিল।