মাঝে মাত্র ৫ মাসের বিরতি। শুক্রবার থেকে ফের শুরু হচ্ছে আইপিএলের নতুন মরসুম। তবে গতবারও করোনা কাটা ছিল আইপিএলের, এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। করোনার মধ্যে জৈব সুরক্ষা বলয়ে দর্শকশূন্য মাঠে হবে খেলা। এছাড়া দেশের ছটি মাঠ কলকাতা, মুম্বই, দিল্লি, ব্যাঙ্গালুরু, চেন্নাই ও দিল্লিকে বেছে নেওয়া হয়েছে আইপিএল ভ্যেনু হিসেবে। কোনও দলই পাচ্ছে না হোম অ্যাডভান্টেড। ইতিমধ্যেই একাধিক প্লেয়ার করোনা আক্রান্ত হওয়ায় চিন্তা রয়েছে বিসিসিআইয়ের। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার আইপিএলের প্রথম ম্য়াচে মুখোমুখি হতে চলেছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। জয় দিয়ে মরুম শুরু করতে মরিয়া দুই দল। 

আরও পড়ুুনঃ কখন-কোথায় দেখা যাবে আইপিএলের প্রথম ম্যাচ, জেনে নিন বিস্তারিত

আত্মবিশ্বাসী মুম্বই ইন্ডিয়ান্স পল্টন-
২০১৯ ও ২০২০ সালে পরপর চ্যাম্পিয়ন। ২০২১ সালে হ্যাটট্রিক করার হাতাছানি। আইপিএলের ইতিহাসে সর্বাধিক ৫ বার চ্যাম্পিয়ন। লক্ষ্য ষষ্ঠ ট্রফি জয়। এই বিষয়গুলিই প্রমাণ করে আইপিএলের মঞ্চে কতটা শক্তিশালী রোহিত শর্মার দল। এবার শক্তির নিরিখে আইপিএলের অন্যতম সেরা দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দল। যদিও প্রথম ম্যাচে কোয়ারেন্টাইন নিয়মের জন্য পাওয়া যাবে না কুইন্টন ডিকককে। তাছাড়া দলের ব্যাটিং লাইনআপে থাকছেন অধিনায়ক রোহিত শর্মা সহ সূর্যকুমার যাদব, ইশান কিষাণ, কায়রন পোলার্ড, হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুণাল পান্ডিয়া। পান্ডিয়া ব্রাদার্স দলের হয়ে অলরাউন্ডারের ভূমিকাও পালন করবেন। এছাড়া বোলিং লাইনআফে থাকছেন ন্য়াথান কুল্টারনাইল অথবা পীযুষ চাওলা, রাহুল চাহার, ট্রেন্ট বোল্ট ও জসপ্রীত বুমরা। প্রথম ম্য়াচে নামার আগ অনুশীলনে নিজেদের সেরাটা উজার করে দিয়েছে রোহিত শর্মার দল। বিগত কয়েক মরসুম জয় দিয়ে শুরু করতে না পারলেও, এবার জয় দিয়ে মরসুম শুরু করার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী ৫ বারের আইপিএল চ্যাম্পিয়নরা। 

আরও পড়ুনঃ'এ যেন এক অন্য হরভজন সিং', কেন এমন বললেন দীনেশ কার্তিক

জয় দিয়ে মরসুম শুরু করতে মরিয়া আরসিবি-
গতবার দুরন্ত শুরু করেও মাঝে ছন্দ হারিয়েছিল বিরাট কোহলির আরসিবি। শেষ চারে কোয়ালিফাই করলেও সেখান থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল বিরাটের দলকে। ১৩ মরসুম কেটে গেলেও এখনও একবারও আইপিএল ট্রফি যায়নি আরসিবির ঘরে। তাই এবার স্বপ্ন পূরণ করাই প্রদান লক্ষ্য বিরাট কোহলির দলের। দলে করোনার থাবা কিছুটা চিন্তা বাড়ালেও, দেবদূত পাড়িকলের সুস্থ হয়ে ওঠা স্বস্তি দিয়েছে আরসিবি শিবিরে। যদিও এখনও করোনা আক্রান্ত রয়েছেন ড্যানিয়েল সামস। অনুশীলনে নিজেদের যতটা সম্ভব তৈরি করে নিয়েছেন আরসিবি প্লেয়াররা। দলের ওপেনিংয়ের দায়িত্ব সামলাতে দেখা যাবে বিরাট কোহলি ও দেবদূত পাড়িকলকে মিডল অর্ডারে থাকছেন এবি ডিভিলিয়ার্স ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। লোয়ার অর্ডারে মহম্মদ আজাহরাউদ্দিন, সচিন বেবি। বোলিং লাইনআপে থাকতে পারেন ওয়াশিংটন সুন্দর, মহম্মদ সিরাজ, যুজবেন্দ্র চাহল, কাইল জেমিসন। জেমিসন ও সুন্দর ব্যাটিং করতেও সক্ষম। প্রথম ম্য়াচে নামার জন্য তৈরি বিরাট ব্রিগেড। 

আরও পড়ুনঃ কেকেআরের প্রথম একাদশে সুযোগ পাবে কোন ৪ বিদেশি, কী বলছে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা

মুখোমুখি পরিসংখ্যান-
আইপিএলে মুখোমুখি পরিসংখ্যানের নিরিখে কিন্তু বিরাট কোহলির আরসিবি থেকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে রোহিত শর্মার মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। এখনও পর্যন্ত আইপিএলের ইতিহাসে মোট ২৯ বার মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। সেখানে ৫ বারের আইপিএল চ্য়াম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্স জিতেছে ১৯ বার, আর বিরাটের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর জিতেছে মাত্র ১০। 

ম্যাচ প্রেডিকশন-
দুই দলের সার্বিক শক্তির বিচার করলে আরসিবির থেকে অনেকটা এগিয়ে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। ব্যাটিং বিভাগের গভীরতা ও বোলিং শক্তি দুই দিকেই বিরাটের দলের থেকে এগিয়ে রোহিত ব্রিগেড। যদিও আগেল তুলনায় শক্তি অনেকটা বাড়িয়েছে আরসিবিও। তবে আইপিএলের প্রথম ম্যাচে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের উপরই বাজি ধরেছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।