সল্টলেক দত্তাবাদে  বোমাবাজির ঘটনায় গ্রেফতার ২ বিজেপি কর্মী। তাঁদেরকে পাকড়াও করে বিধান নগর দক্ষিণ থানার পুলিশ। বেঙ্গল কেমিক্যালস এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া ওই দুই অভিযুক্তের নাম ভোলা সর্দার এবং সানি দাস।

আরও পড়ুন, ৩৯ বছর পর বন্ধুকে ফিরে পাওয়া, ছোটবেলা ফেরাল 'হ্য়াম রেডিও'

 

গোঁসা করে ভোলা বলে 'আমাদের ফাঁসানো হচ্ছে'

বিজেপির কর্মী বলে পরিচয় দেওয়া ধৃত ভোলা, বোমা ছোড়ার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর রীতিমত ক্ষেপে লাল। সে সাংবাদিকের প্রশ্নে সাফ জানাল, 'আমি বোমা মারিনি, মেরেছে সুজিত বসুর লোক। রাজু আর রমেশ'। যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসের সহিত বলে, যেন বোমা মারার আগে একই সঙ্গে ঘুঘনি-রুটি খেয়ে আলোচনা করেছে। এমনই কিছু আবেগ নিয়ে গোঁসা করে ভোলা বলেছে 'আমাদের ফাঁসানো হচ্ছে'। ভোলা সর্দারের 'স্কুল বয়' স্টাইলে 'আমি করিনি ম্যাম' এক্সপ্রেশন হলেও  সানি দাসের মুখের রঙ, পুলিশ গাড়িতে উঠে অনেকটাই উড়ে গিয়েছে।

 

 

আরও পড়ুন, আলু-পেঁয়াজের কালোবাজারির পর্দা ফাঁস, শহরের বাজারে অভিযান চালাল ইবি

 

শনিবার তাদেরকে বিধাননগর আদালতে তোলা হয়েছে

 পয়লা নভেম্বরে সল্টলেক দত্তাবাদে বোমাবাজির ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়  বিজেপি কর্মী ভোলা সর্দার এবং সানি দাসকে। তাঁদেরকে পাকড়াও করে বিধান নগর দক্ষিণ থানার পুলিশ।  ধৃতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল। শনিবার তাদেরকে বিধাননগর আদালতে তোলা হয়েছে এবং নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানানো হচ্ছে যদিও ভোলা সর্দারের দাবি, 'আমরা বিজেপি করি, তাই আমাদের ফাঁসানো হচ্ছে তৃণমূলের রাজু এবং রমেশ বোমা মেরেছে'।

 

আরও পড়ুন, 'ভাত-ডাল-পটলভাজা খেয়ে ভাট বকলেন', শাহ-সফর ঘিরে বিস্ফোরক নুসরত