হাজারো বন্দোবস্ত করেও পরানো যাচ্ছে না লাগাম। রাজ্য়ে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মৃতের সংখ্যাও ক্রমশ উর্ধমুখী। খাস কলকাতায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের৷ ২৪ ঘন্টায় মহানগরে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৫ জন৷ পরিসংখ্য়ান বলছে,কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে৷ স্বাস্থ্য় দফতরের বুলেটিনেই এই খবর জানা গিয়েছে। 

এবার একদিনে রাজ্য়ে ৬১ জনের মৃত্যু, করোনা নিয়ে মৃত্যুতে সর্বোচ্চ রেকর্ড.

শুধু কলকাতায় একদিনে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৫ জন৷ মঙ্গলবার এই সংখ্যাটা ছিল ৭১৯ জন৷ এখনও পর্যন্ত কলকাতায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৫,২০২ জন৷ কলকাতাতেই একদিনে  ২৫ জনের মৃত্য়ুর ফলে মোট  মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৬০ জন৷ কলকাতায় এই পর্যন্ত সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ১৭,৫৬১ জন৷ গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৯৫ জন৷ শহরে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৭৮১ জন৷

বাংলার লকডাউনে 'পাকিস্তান যোগ', মমতাকে নিয়ে কী বললেন অর্জুন

একদিনে মৃত্য়ুর নিরিখে এবার প্রতিদিনই রেকর্ড গড়ে চলেছে বাংলা। মাঝে কম হলেও ফের উর্ধমুখী আক্রান্তের সংখ্যা। যা চিন্তায় ফেলেছে স্বাস্থ্য় ভবনকে। যদিও খুশির খবর, রাজ্য়ে বাড়ছে সুস্থ হয়ে ওঠার হার৷  বুধবারের রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের বুলেটিন বলছে, রাজ্য়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৬১ জনের৷ যা একদিনের হিসেবে পশ্চিমবঙ্গে সর্বোচ্চ ৷ মঙ্গলবার এই মৃতের সংখ্যাটা ছিল ৫৪ জনে৷ যার ফলে সব মিলিয়ে রাজ্য়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১,৮৪৬ জন৷ পাশাপাশি গত ২৪ ঘন্টায় বাংলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২,৮১৬ জন৷ পরিসংখ্য়ান বলছে, এখনও  রাজ্যে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮৩ ,৮০০ জন৷ অ্যাক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২২, ৯৯২ জন৷ সংখ্যা অনুযায়ী একদিনে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ২,০৭৮ জন৷

৫ অগস্ট ছুটি ঘোষণা হোক, রাম মন্দিরের প্রতিষ্ঠা নিয়ে দাবি দিলীপের.

স্বাস্থ্য় দফতরের রিপোর্ট বলছে এখনও পর্যন্ত রাজ্য়ে সুস্থ হয়েছেন ৫৮,৯৬২ জন৷ বর্তমানে রাজ্য়ে সুস্থ হয়ে ওঠার হার বেড়ে দাঁড়াল ৭০.৩৬ শতাংশ৷ গতকাল যা ছিল ৭০.২৪ শতাংশ৷ একদিন বাংলায় টেস্ট হয়েছে ২৪,০ ৪৭ টি৷ যদিও আরও টেস্ট বাড়ানোর কথা বলেছে স্বাস্থ্য় ভবন। মঙ্গলবার এই টেস্টের সংখ্য়া ছিল ২২,৩২১ টি৷ এই পর্যন্ত মোট টেস্টের সংখ্যা রাজ্য়ে ১০ লক্ষ ছাড়িয়ে গেল৷ রাজ্য়ে হেলথ বুলেটিন বলছে, এখনও পর্যন্ত টেস্টের সংখ্যা ১০,৩০২৭। 

সংখ্য়াতত্ত্ব অনুযায়ী, যাদের মৃত্য়েু হয়েছে তাদের মধ্য়ে শহর কলকাতাকে ছাপিয়ে গেছে উত্তর ২৪ পরগনা। কলকাতায় যেখানে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৬৬৫ জন, সেখানে উত্তর ২৪ পরগনায় এই সংখ্যাটি ৭০৯। তার পরেই আছে হাওড়া, ২৯৩ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৬ জন৷ হাওড়া ৬ জন৷ হুগলি ২ জন৷ পূর্ব বর্ধমান ১ জন৷ পশ্চিম মেদিনীপুর ১ জন৷ নদিয়া ১ জন৷ মুর্শিদাবাদ ১ জন৷ মালদা ১ জন৷ দক্ষিণ দিনাজপুর ২ জন৷ দার্জিলিং ৪ জন৷