বাঘিনীদের জন্যে আলিপুর চিড়িয়াখানা বাছাই করে নিল পাত্র । হ্যাঁ ঠিকই পড়ছেন। পাত্রের নাম রাজা। বয়েস পাঁচ বছর। খোলসা করে বলা যাক, মঘধ্যপ্রদেশের পান্ন থেকে একটি নতুন সাদা বাঘ আনা হল আলিপুর চিড়িয়াখানায়। মূল লক্ষ্য বাঘিনীদের নিঃসঙ্গতা দূর করা। পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিলে, জুলাই-এর মাঝামাঝি এই বাঘটিকে খাঁচায় অন্য বাঘিনীদের মধ্যে ছাড়া হবে। 

প্রসঙ্গত এদিন পাত্রে সঙ্গে এসেছে বরপক্ষও। চিড়িয়াখানায় নতুন অতিথি হয়ে এসেছে ৬ টি কৃষ্ণসার হরিণ (৩টি ছেলে, ৩টি মেয়ে)। এর সঙ্গে এসেছে দুটি সম্বর হরিণও। এদের সকলকে পাটনার চিড়িয়াখানা থেকে আনা হয়েছে।  সাদা বাঘটির বয়েস পাঁচ।

চিড়িয়াখানার তরফে জানানো হচ্ছে,  এ পুরো দেনাপাওনার গল্প। বিনা মূল্যে পাওয়া যায়নি এই  সৎপাত্রকে। রাজাকে আনার জন্যে তদ্বির করা হয়েছিল অনেক আগে থেকেই। সেই প্রকল্প দীর্ঘায়িত হওয়ায় মাঝখানে এসেছিল স্নেহাশিস। তবুও হাল ছাড়েনি চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ।  অবশেষে একটি মাদী জেব্রাকে পাঠিয়ে চিড়িয়াখানায় আনা হল রাজাকে। অনেক দূরের যাত্রা। তার পরে আবার নতুন পরিবেশ। স্বভাবতই গোমরা মুখ করে রেখেছে রাজা। তার মন ভাল হলেই কনেপক্ষের সঙ্গে আলাপ করানো হবে তাঁর।