Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ঘরে বসেই মাইনে নেন 'দিদিমণি' সুকন্যা, অনুব্রতর মেয়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ

সুকন্যার বিরুদ্ধে এবার নতুন অভিযোগ জমা পড়ল কলকাতা হাই কোর্টে। টেট পরীক্ষা ছাড়াই প্রাথমিক স্কুলে চাকরি পেয়েছেন সুকন্যা, শুধু তাই নয় স্কুলে একদিনও না গিয়েও মিলেছে বেতন। এমনই অভিযোগ উঠল তৃণমূল জেলা সভাপতির মেয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনায় রীতিমত অস্বস্তিতে ঘাসফুল শিবির।

 Advocate Firdous shamim clailms Anubrata s daughter Sukanya Mandal gets job without appearing in TET examination
Author
Kolkata, First Published Aug 17, 2022, 6:14 PM IST

গোরু পাচার মামলায় ইতিমধ্যে সিবিআই-এর হাতে গ্রেফতার অনুব্রত মণ্ডল এবার তাঁর মেয়ে সুকন্যার বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ জমা পড়ল কলকাতা হাই কোর্টে। টেট পরীক্ষা ছাড়াই প্রাথমিক স্কুলে চাকরি পেয়েছেন সুকন্যা, শুধু তাই নয় স্কুলে একদিনও না গিয়েও মিলেছে বেতন। এমনই অভিযোগ উঠল তৃণমূল জেলা সভাপতির মেয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনায় রীতিমত অস্বস্তিতে ঘাসফুল শিবির।

বুধবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার শুনানি ছিল। শুনানি চলাকালীন আইনজীবী ফিরদৌস শামিম একটি অতিরিক্ত হলফনামায় সুকন্যা মণ্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা করেন। আইনজীবীর দাবি, টেট পরীক্ষা না দিয়েই প্রাথমিক স্কুলে চাকরি পেয়েছেন অনুব্রত-কন্যা সুকন্যা মণ্ডল। তিনি আরও দাবি করেন, চাকরি পাওয়া ইস্তক কোনও দিন স্কুলেই যাননি সুকন্যা। বরং তাঁর সাক্ষর নিতে স্কুলের রেজিস্টারের খাতা আসত জেলা সভাপতির বাড়িতে। দিনের পর দিন স্কুলে না গিয়েও বাড়িতে বসেই বেতন নিয়ে গিয়েছেন সুকন্যা। 

আরও পড়ুনঅনুব্রত-কন্যা সুকন্যাকে জেরা করার শুরুতেই ধাক্কা, আজ তাঁর মন ভালো নেই 


প্রসঙ্গত, বুধবার সকালে গোরু পাচার মামলা নিয়ে সুকন্যা মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন সিবিআই আধিকারিকরা। কিন্তু তিনি বিশেষ কিছু বলতে চাননি বলেই সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে। এই দিন বিকেলেই আদালতে নতুন অভিযোগ জমা পরে সুকন্যার নামে। বৃহস্পতিবার সুকন্যা মণ্ডলকে আদালতে তলব করেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন কোটি টাকার লেনদেন সত্ত্বেও অনুব্রত-কন্যার বাড়িতে সময় মাত্র ১০ মিনিট, কেন চলে গেলেন সিবিআই কর্তারা?


আইনজীবী ফিরদৌস শামিমের দাবি অনুযায়ী টেট পরীক্ষাই দেননি অনুব্রত-কন্যা অথচ বোলপুর ওয়েস্ট সার্কেলের কালিকাপুর প্রাইমারি স্কুলে নিয়োগ হয় তাঁর। নিয়োগের পরেও বিশেষ স্কুলে যাননি তিনি। বরং স্কুলের একজন রেজিস্টারের খাতা অনুব্রতর বাড়িতে নিয়ে এসে সুকন্যার হাজিরা নিয়ে যেতেন। 
শুধু অনুব্রত-কন্যাই নয় টেট পরীক্ষা না দিয়ে চাকরি পেয়েছে আরও ছয়জন। এদের মধ্যে প্রত্যেকেই অনুব্রত ঘনিষ্ঠ বা তাঁর আত্মীয়। 
একে আইনি প্যাঁচে যর্যরিত অনুব্রত তাঁর উপর নতুন করে অভিযোগ দায়ের হল তাঁর মেয়ের নামে। ঘটনায় রীতিমত অস্বস্তিতে রাজ্য সরকার ও মধ্যশিক্ষা পর্ষদের আইনজীবীরা। 
আইনজীবী ফিরদৌস শামিমের অভিযোগ শুনে সুকন্যা-সহ অভিযুক্ত ছয়জনকে টেট পরীক্ষায় পাশ করার সার্টিফিকেট নিয়ে বৃহস্পতিবার হাই কোর্টে হাজিরার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। অভিযুক্তদের আদালতে হাজিরা নিশ্চিত করার দায়িত্ব দেওয়া হয় বীরভূম জেলার পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠীকে।  

আরও পড়ুনএবার নজরে অনুব্রতর দেহরক্ষী, ৪৪ লক্ষ নগদ থেকে আরম্ভ করে মিলল ৩৫-টি বেআইনি সম্পত্তির হদিশ

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios