কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে  বিক্ষোভ। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে দেওয়া হল না জেএনইউয়ের এসএফআই নেত্রী ঐশী ঘোষকে। ঐশী পৌঁছনোর আগে থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়। যার জেরে  কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে শুরু হয় বিক্ষোভ। 

আরও পড়ুন, মমতার স্বপ্নের ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধন কলকাতায়, অথচ ব্রাত্য় খোদ মুখ্য়মন্ত্রী


সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা নাগাদ কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে 'সেভ অটোনোমি সেভ ইউনিভার্সিটি ফোরাম'-এর উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজস্ট্রিট ক্যাম্পাসে একটি আলোচনাসভায় যোগ দেওয়ার কথা ছিল ঐশী ঘোষের । কিন্তু সেই সভার অনুমোদন মেলেনি। অভিযোগ, সেখানে ঐশী পৌঁছনোর আগে থেকে দুটি গেট বন্ধ করে রাখা হয়।এরপরই ঐশীকে ঢ়ুকতে দিতে হবে বলে শুরু হয় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে বিক্ষোভ। শুরু হয় দুপক্ষের মধ্যে  বচসা।

আরও পড়ুন, 'উনি কবে কাকে সম্মান দিয়েছেন', আমন্ত্রণ বিতর্কে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা দিলীপের


অপরদিকে কিছুক্ষণের মধ্যেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের বাইরে সভার আয়োজন করে এসএফআই। সেখানেই বক্তব্য রাখেন জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ঐশী। সভায় বক্তব্য রাখতে উঠে ঐশী তীব্র আক্রমণ করেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে। পাশাপাশি গেরুয়া শিবিরকে  কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। ঐশী বলেন, ' দেশে বিভাজনের রাজনীতি করছে বিজেপি।  দেশে এনআরসি, সিএএ, এনপিআর করে মানুষের মধ্য়ে বিভাজন সৃষ্টি করা হচ্ছে। কিন্তু বাংলাকে আমরা ধর্মের ভিত্তিতে বিভাজন হতে দেব না। তার জন্য কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় স্তরেই গড়ে তুলতে হবে প্রতিরোধ। তাঁর কথায়, বাংলাকে আগেও ধর্মের ভিত্তিতে ভাগ হতে দিইনি, আজও দেব না।'