ফের অ্যাপ বাইক চালকের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। তরুণীর শ্লীলতাহানির অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বাইক চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃতের নাম ধীরাজ কুমার রাম। ধৃত কলকাতার তিলজলা রোডের বাসিন্দা। 

আরও পড়ুন, 'বাইক ট্য়াক্সিতে তরুণীকে অশ্লীল প্রশ্ন' থেকে নগ্ন ভিডিও প্রকাশ, রইল 'রাতের কলকাতা'র ৫ কাহন

 

 

অশ্লীল ভাষাতে কথা-শ্লীলতাহানির অভিযোগ

শনিবার রাতে অভিযুক্তের বাড়ির সামনে থেকে ধীরাজ গ্রেফতার করে পুলিশ। পুলিশি সূত্রে খবর, রাজারহাটের বাসিন্দা বছর ২৫ এর এক তরুণী শুক্রবার দুপুরে বেলেঘাটা রোড থেকে ওই অ্যাপ নির্ভর বাইকে ওঠেন তরুণী। অভিযোগ, ধীরাজ নামের ওই বাইক চালক তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। এমনকি তাঁকে গন্তব্য়ে পৌছে না দিয়ে মাঝ রাস্তাতেই নামিয়ে দেন। এমনকী অশ্লীল ভাষাতে কথা বলেন এবং হুমকিও দেয় অভিযুক্ত। 

আরও পড়ুন, ভাইজিকে লাগাতার ধর্ষণ কাকুর, তদন্তে হরিদেবপুর থানার পুলিশ

 

 

 'প্রেমিকের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক কেমন চলছে'

ভাড়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়েই ঝামেলা বাধে। তবে এই ঘটনার পর অভিযুক্ত বাইক চালকের বিরুদ্ধে গড়ফা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই তরুণী। অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতেই ধীরাজ কুমার গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার ধৃতকে আদালতে পেশ করা হবে। এদিকে কয়েকদিন আগেই আরও একটি লজ্জাজনক ঘটনা ঘটে কলকাতার বুকে। 'প্রেমিকের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক কেমন চলছে' এমন অস্বস্তিকর প্রশ্নের মুখে তরুণীকে ফেলে দেয় এক বাইক ট্য়াক্সি চালক। ২২ তারিখ রবিবার রাত নটা নাগাত আলিপুর থেকে গড়ফা যাওয়ার সময় অ্যাপ নির্ভর বাইক ট্য়াক্সি বুক করেন এক তরুণী। বাইকে ওঠার পর থেকেই তরুণীকে একা পেয়ে নানা অশ্লীল প্রশ্ন করতে বাইক চালক। এমনকি   গন্তব্যস্থলে পৌছানোর পর তরুণীর বাড়ি অবধি ধাওয়া করে ওই বাইক চালক। এরপর ওই তরুণী পুলিশকে  সব কিছু জানান।   ইতিমধ্য়েই অভিযোগ পেয়ে  অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে গরফা থানার পুলিশ।