অভিযান চালিয়ে বড়সড় সাফল্য পেল কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। শহরের দুটি আলাদা আলাদা জায়গায় অভিযান চালিয়ে উদ্ধার হয়েছে দেশি রেভালবার ও দেড়ি কোটিরও বেশি টাকা। পুলিশের জালে উঠে এসেছে অস্ত্র কারবারের সঙ্গে জড়িত দুই ব্যক্তি।

আরও পড়ুন-পুজো মণ্ডপ দর্শক শূন্য রাখার রায় বহাল রাখল হাইকোর্ট, সর্বোচ্চ প্রবেশাধিকার ৪৫ জন

সূত্রের খবর, বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে পার্ক স্ট্রিট থানা এলাকায় এক ব্যক্তির বাড়িতে হানা দেয় কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। ইলিয়ট রোডে রোডে মহম্মদ ইমরান নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে হানা দেয় এসটিএফ। তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর পরিমান টাকা এবং সোনার গয়না। ১ কোটি ৬২ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। যদিও, তল্লাশির সময় মহম্মদ ইমরান বাড়িতে ছিল না বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও সোনার গয়না, দুটি ল্যাপটপ এবং দুটি মোবাইল ফোন উদ্ধার হয়েছে। কোথা থেকে এত পরিমান টাকা মহম্মদ ইমরানের বাড়িতে এল। তার সদুত্তর পুলিশ পায়নি। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পার্ক স্ট্রিট থানা।

আরও পড়ুন-ডাক্তার হয়ে গরিবদের সেবা করতে ইচ্ছুক তুলকালাম, হরিশ্চন্দ্রপুরের হদতদরিদ্র ছাত্রের সাফল্য-গাঁধা

অন্যদিকে, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দক্ষিণ বন্দর থানার স্ট্র্যান্ড রোডে অভিযান চালায় এসটিএফ। রাত আটটা নাগাদ ধরা পড়ে দুই অভিযুক্ত। মোটর বাইক করে অস্ত্র পাচারের চেষ্টা করছিল বলে অভিযোগ। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের পর ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় আটটি ওয়ান শটার। অভিযুক্ত দুই সুজাত গোস্বামী ও মহম্মদ শাহিদ। ধৃতদের বাড়ি হুগলির শ্রীরামপুরে বলে জানতে পেরছে এসটিএফ।