Asianet News BanglaAsianet News Bangla

রাজসাক্ষী হওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন অর্পিতা, ইডির চার্জশিটে উঠে এল আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য

পার্থর স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের প্রয়াণের পর অর্পিতার নামে হস্তান্তরিত করা হয়েছিল বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ার। অর্পিতার বয়ান অনুযায়ী, পার্থ- ঘনিষ্ঠ এ হিসাবরক্ষক তাঁকে বলেছিলেন পার্থর মেয়ে বিদেশ থেকে ফেরা পর্যন্ত অর্পিতার নামে হস্তান্তরিত করা হচ্ছে  শেয়ার। 

Arpita Mukherjee wants become the government witness in SSC recruitment scam case according to ED s charge sheet ANBISD
Author
First Published Sep 21, 2022, 10:37 AM IST

এসএসসি বা স্কুল সার্ভিস কমিশনে দুর্নীতির মামলায় আদালতে চার্জশিট পেশ করেছে ইডি। সেখানেই উঠে আসছে একের পর এক চমকপ্রদ তথ্য। চার্জশিটে জানানো হয়েছে রাজসাক্ষী হওয়ার আবেদন জানানো হয়েছিল পার্থ-ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। 

পার্থর স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের প্রয়াণের পর অর্পিতার নামে হস্তান্তরিত করা হয়েছিল বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ার। অর্পিতার বয়ান অনুযায়ী, পার্থ- ঘনিষ্ঠ এ হিসাবরক্ষক তাঁকে বলেছিলেন পার্থর মেয়ে বিদেশ থেকে ফেরা পর্যন্ত অর্পিতার নামে হস্তান্তরিত করা হচ্ছে  শেয়ার। তারপর আবার পার্থর মেয়ে কলকাতায় ফিরলে তাঁ ফিরিয়ে দেওয়া হবে। অর্পিতার দাবি কার্যত চাপ দিয়েই ওই শেয়ার হস্তান্তর করিয়েছিলেন। 

ইডির চার্জশিটে উঠে এসেছে পার্থ-অর্পিতার তাইল্যান্ড ভ্রমণ সহ একাধিক অপ্রকাশিত তথ্য। অর্পিতার সন্তান দত্তক নেওয়ার সিদ্ধান্ত তাঁর মধ্যে অন্যতম। কোটি কোটি টাকারভ সম্পত্তি, বিদেশ ভ্রমণের তথ্যের পাশাপাশি সামনে এল একটি শংসাপত্রও। এই সংসাপত্র অনুযায়ী মা হতে চেয়েছিলেন অর্পিতা। সন্তান দত্তক নিতে চেয়ে প্রয়োজনীয় অনাপত্তির শংসাপত্র বা নো অবজেকশন লেটার চাওয়া হয়েছিল তৎকালীন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে। আপত্তি নেই জানিয়ে 'সার্টিফিকেট'ও দেওয়া হয় পার্থর তরফ থেকে।  যদিও জেরার মুখে পার্থ জানিয়েছেন, একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে এরম বিভিন্ন বিষয়ে শংসাপত্র নিতে আসতেন অনেকেই। তবে শংসাপত্রে করা স্বাক্ষর যে তাঁরই তা স্বীকার করেছেন পার্থ।

আরও পড়ুন - ফের সিবিআই-এর আতশকাচের নীচে পার্থ-ঘনিষ্ট, মোনালিসা দাসের দাদা মানস দাসের নামে একাধিক সম্পত্তির হদিশ
 
কয়েকদিন আগেই অর্পিতার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে চালিয়ে ২১ কোটি ৯০ লাখ টাকা ও বহুমূল্য গয়না, বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার করেছিল ইডি। কুবেরের ধন ছাড়াও উদ্ধার হয় কিছু নথি। এর মধ্যে অন্যতম হল অর্পিতার দত্তক নেওয়া সংক্রান্ত কাগজপত্র। নো অবজেকশন লেটারে পর্থ নিজেকে অর্পিতার ‘ঘনিষ্ঠ পারিবারিক বন্ধু’ হিসেবে উল্লেখ করেন এবং অর্পিতা সন্তান দত্তক নিলে তাঁর কোনও আপত্তি নেই বলেও জানিয়েছেন ওই চিঠিতে। 

আরও পড়ুন - 'পার্থ-অনুব্রত দলের পচে যাওয়া অংশ', জহর সরকারের মন্তব্যে অস্বস্তি বাড়ছে ঘাসফুল শিবিরে

প্রসঙ্গত, এসএসসি (স্কুল সার্ভিস কমিশন) দুর্নীতি মামলায় পার্থ-অর্পিতার বিরুদ্ধে ৫৮ দিনের মাথায় চার্জ শিট পেশ করতে চলেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। সোমবারই ইডির বিশেষ আদালতে পেশ করা হতে পারে চার্জশিট পেশ করা হবে। ইডি সূত্রে জানা যাচ্ছে চার্জশিটে নাম থাকছে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তার ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায় সহ আরও কয়েকজনের। 

আরও পড়ুন - 'বাড়িতে নজরবন্দি থাকতেও রাজি', আদালতের কাছে 'যে কোনও শর্ত সাপেক্ষে' জামিনের আবেদন পার্থর

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios