বাজারে আলু-পেঁয়াজে দামে আগুন। কলকাতার একাধিক বাজারে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স তথা এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের কয়েকদিন ধরেই হানা চলছে। কেউ কোথাও অতিরিক্ত আলু-পেঁয়াজ স্টক করেছে কিনা বা দাম চড়িয়ে বিক্রি করছে কিনা। কিন্তু এত সবের পরেও দাম কমেনি আদৌ, বাধ্য হয়ে মোদিকে চিঠি পাঠালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়। আর এদিকে সবজির দাম নিয়ে মমতাকে তুলোধনা করলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।

আরও পড়ুন, আলু-পেঁয়াজের কালোবাজারির পর্দা ফাঁস, শহরের বাজারে অভিযান চালাল ইবি

 

 

 কৃষি আইন নিয়ে আলোচনা না করার অভিযোগ

বাংলায় লাগাম ছাড়া আলু-পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি। তাই দাম নিয়ন্ত্রণের হস্তক্ষেপ চেয়ে মোদিকে চিঠি পাঠালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়।  কেন্দ্রের কৃষি আইন রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা না করে তৈরির অভিযোগ তুলেছেনও ওই চিঠিতে। আর এরপরেই মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। তিনি বলেন,'সবজির দাম নিয়ন্ত্রণ করবে রাজ্য সরকার। সবজির দাম নিয়ে দালালি বন্ধ করার দায়িত্ব মুখ্যমন্ত্রী ও টাস্ক ফোর্সের।'

 

 

আরও পড়ুন, কালী পুজোর আগে লাগাম ছাড়া ভীড় শহরের বাজারে, ফের সংক্রমণ বাড়ল কলকাতায়

 

বাম- বিজেপির খোঁচা 

অপরদিকে, মুখ্যমন্ত্রীর সুরে সুর মিলিয়ে তৃণমূল নেতা সৌগত রায় জানিয়েছেন, যদি কেন্দ্র মুদ্রস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ না করে, বাজারে টাকার জোগান না কমাতে পারে তাহলে  মূল্যবৃদ্ধির উপর রাশ টানা যাবে না। আমাদের রাজ্য়ের মুখ্যমন্ত্রী যথাযত পদক্ষেপ নিয়েছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা ও প্রধানমন্ত্রীর উপর চাপ সৃষ্টি করেছেন। যাতে দল্রমূল্য নিয়ন্ত্রণে আসে।' উল্লেখ্য,  মোদিকে চিঠি পাঠানোর পর শুধু  সায়ন্তনই নয় বিজেপি-বাম নেতাদের অনেকই খোঁচা দিয়েছেন মমতাকে।