গরু পাচার কাণ্ডে সিবিআই যতই তদন্তের জাল গোটাচ্ছে। ততই ঘণীভূত হচ্ছে রহস্য। বিএসএফ কর্তা সতীশ কুমারকে গ্রেফতারের পর তাঁকে জেরা করে চাঞ্চল্যতর তথ্য পায় গোয়েন্দারা। এ রাজ্যের বাংলাদেশ সীমান্তে গরু পাচার চক্রের সিন্ডিকেট সম্পর্কে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় সিবিআই। সেই সূত্র ধরেই গরু পাচারকাণ্ডে বিএসএফের আরও ৪ জন কর্তাকে তলব করল  সিবিআই।

আরও পড়ুন-বিজেপি করার 'অপরাধে' হামলা, রাতের অন্ধকারে বাড়িতে চড়াও হয়ে খুনের হুমকি

একজন ডিআইজি এবং দুই অ্যাসিস্ট্যান্ট কমাডেন্ড সহ চার জন বিএসএফ কর্তাকে ইতিমধ্যেই নোটিস পাঠিয়েছে সিবিআই কর্তারা। সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহে নিজাম প্যালেসে হাজিরা দিতে পারেন ওই সিবিআই কর্তারা। গরু পাচার কাণ্ডে আরও তথ্য় পেতে চায় সিবিআই। এই মামলায় গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্ত এনামুল হকের থেকে তদন্তকারীরা জানতে পারে, সীমান্তরক্ষী বাহিনীর একাংশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বাংলাদেশে গরু পাচার করত সে। সিবিআই এনামূলকে গ্রেফতার করলেও জামিনে সে ছাড়া পায়।

আরও পড়ুন-এবার বেসুরো আসানসোলের মেয়র, কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা কোথায়, ফিরহাদকে হুমকি চিঠি জিতেন্দ্র তিওয়ারির

এই অবস্থায় সিবিআই তাঁকে ফের জেরা করতে চাইলে, করোনার কারণ দেখিয়ে গরহাজির থাকে এনামূল। তাঁকে নিজেদের হেফাজতে পেতে বেশ কয়েকবার তলব করে সিবিআই। পরে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে অবশেষে আসানসোল আদালতে আত্মসমর্পণ করে এনামূল। বর্তমানে জেল হেফাজতে রয়েছে সে। এবার গরু পাচার কাণ্ডে তদন্তের গতি বাড়াতে আরও চারজন বিএসএফ কর্তাকে তলব করল সিবিআই।