নজিরবিহীন ঘটনা ঘঠল শহর কলকাতায়। এই ঘটনার সাক্ষী কোনও দিন দেখেনি তিলোত্তমা। ঘুমন্ত অবস্থায় ট্য়াক্সি ফেলে রেখে গেলেন অভিভাবক। অবশেষে, চালকের তৎপরতায় পুলিশের সাহায্যে ঘরে ফেরে একরত্তী শিশু। শিশুর অভিভাবক জানান, তাড়াহুড়ো করে ট্যাক্সি থেকে নামতে গিয়ে ঘুমন্ত শিশুকে নিতে ভুলে গিয়েছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন-বিসর্জনের আগেই সল্টলেকে ভস্মীভূত পুজো মণ্ডপ, আগুন লাগার কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বিধাননগর কমিশনারেট এলাকায়। পুলিশ সূত্রে খবর, বিমানবন্দরে নেমে শিশুকে নিয়ে আলম বাজার যাওয়ার জন্য ট্যাক্সিতে ওঠেন ওই অভিভাবক। নিজের গন্তব্যে পৌঁছানোর পরই তড়িঘড়ি করে নেমে পড়েন ওই যাত্রী। ভুলে যান তাঁর সঙ্গে একশিশুও ছিল। 

আরও পড়ুন-অমানবিক স্কুল শিক্ষক, বাড়ির বারান্দায় বিশ্রামরত ভ্য়ান চালককে পিটিয়ে খুন

আলম বাজারে যাত্রীকে ছেড়ে বেরিয়ে আসেন ট্যাক্সি চালক। কিছু দূর যাওয়ার পর জানতে পারেন, পিছনের আসনে একটি শিশু রয়েছে। শিশুটিকে দেখে নেতাজি সুভাষচন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ট্রাফিক গার্ডে খবর দেন ট্যাক্সি চালক। অবশেষে বিধাননগর পুলিশের সৌজন্যে শিশুর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়।
আরও পড়ুন-করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জের, এবার হাতুড়ে চিকিৎসকদের কাজে লাগাবে স্বাস্থ্য দফতর

পুলিশ মারফত খবর পেয়ে, পুলিশের কাছে যান শিশুটির বাবা। প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্র দেখিয়ে শিশুটিকে নিজের বাড়ি ফিরে নিয়ে যায়। হারিয়ে যাওয়া শিশুকে ফেরত পেলেও, এই ধরনের ঘটনায় হতবাক শহরবাসী। এতদিন ট্যাক্সিতে সোনা-টাকা-পয়সা ফেলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। তা ফেরত দিয়ে মানবিকতার নজির গড়েছেন ট্যাক্সি চালকরাও। কিন্তু ঘুমন্ত শিশুকে ভুল করে ফেলে যাওয়ার ঘটনা শহর কলকাতায় এই প্রথম বলে মনে করছেন অনেকে।