Asianet News BanglaAsianet News Bangla

দশ ও কুড়ি বছরের নিরিখে উন্নয়নে আলাদা পরিকল্পনা করবে রাজ্য, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

  • রাজ্যের উন্নয়নে দুটি আলাদা পরিকল্পনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার
  • আগামী দশ ও কুড়ি বছরের জন্য তৈরি হবে পরিকল্পনা
  • নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
  • নবান্নে ক্যাবিনেট বৈঠকও করেন তিনি
CM Mamata Banerjee announces vision plan for Bengal on Wednesday
Author
Kolkata, First Published Oct 16, 2019, 5:04 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আগামী দিনে এ রাজ্যে উন্নয়নের রূপরেখা কেমন হবে? পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা ধাঁচেই এবার দশ ও কুড়ি বছরের জন্য় দুটি আলাদা পরিকল্পনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। পুজোর ছুটির পর নবান্নে প্রথম ক্যাবিনেট বৈঠকের পর একথা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তৃণমূল জমানার রাজ্যে উন্নয়ন সংক্রান্ত একটি বইও  প্রকাশ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, স্বাধীনতা পর থেকে বাংলায় কী কাজ হয়েছে আর তৃণমূল সরকার জমানায়ই বা কতটা উন্নয়ন হয়েছে, সেই খতিয়ান তুলে ধরা হয়েছে বইতে।  দুর্গাপুজোয় আইন-শৃঙ্খলারক্ষায় পুলিশের ভূমিকারও প্রশংসা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুর্গাপজো শেষ। ফের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরল রাজ্য প্রশানের সদর দফতর নবান্ন। বুধবার নবান্নে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ বিভিন্ন দফতরের মন্ত্রীরা। ছিলেন মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব-সহ প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকরা।  পুজোর ছুটির পর প্রথম কাজের দিনেই নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ক্যাবিনেট বৈঠকের পর নিজেই সাংবাদিক বৈঠক করেন তিনি।  সাংবাদিক-সহ সকলেই বিজয়ার শুভেচ্ছা জানান মুখ্য়মন্ত্রী। বলেন, 'এবারের দুর্গা পুজা নির্বিঘ্নেই মিটেছে। উৎসবের চারদিন রাজ্যে কোথাও কোনও ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ-প্রশাসন অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে কাজ করেছে।' বাঙালি অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নোবেল প্রাপ্তি ও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিসিসিআইয়ের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, 'তৃণমূল জমানায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে এগিয়ে চলেছে বাংলা। সকলেরই বিষয়টি ভালোভাবে গ্রহণ করা উচিত।'

এদিকে উৎসবে আবহেই আবার রাজ্যপালের সঙ্গে রাজ্য সংঘাতও চরমে পৌঁছেছে।  প্রতিবারের মতে এবারও পুজো শেষে রেড রোডে কার্নিভাল হয়েছে।  রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের অভিযোগ,  রাজ্য সরকারের সেই অনুষ্ঠানে তাঁকে ইচ্ছাকৃতভাবে অপমান করা হয়েছে। প্রায় ঘণ্টা চারেক ব্ল্যাক আউট করে রাখাই নয়, সংবাদমাধ্যমে কার্নিভালে যে ক্লিপিং দেখানো হয়েছে, তাতেও রাজ্যপালকে দেখানো হয়নি বলে অভিযোগ। এর উত্তরে আবার নাম করেই রাজ্যপালকে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বুধবার নবান্নে যথারীতি এই নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে প্রতিক্রিয়া জানতে চান সাংবাদিকরা। কিন্তু বিষয়টি এড়িয়ে যান তিনি। 
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios