বুধবার রাজ্য সফরে এসেই বিজেপির কর্মসূচি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতার বিধানসভা কেন্দ্রকে বেছে নিয়েছিলেন জে পি নাড্ডা। ঠিক তার পরের দিন, সেই নিজের কেন্দ্রে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি নিয়ে হাজির হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের বিধানসভা কেন্দ্রের সাধারণ মানুষকে বোঝালেন, বহিরাগতদের কথায় কান দেবেন না। ওঁরা আপনাদের ভুল বোঝানোর চেষ্টা করবে।

আরও পড়ুন-'মমতার রাজত্বে বাংলায় অরাজকতা', কনভয়ের উপরে হামলায় কড়া শাসানি জেপি নাড্ডার

দুদিনের রাজ্য সফরে এসেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। বুধবার সফরের প্রথম দিনে বিজেপির আর নয় অন্যায় কর্মসূচির প্রচারে তিনি বেছে নিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিধানসভা কেন্দ্র ভবানীপুরকে। সেখানে তিনি দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে 'আর নয় অন্যায়' কর্মসূচির লিফলেট বিলি করেন। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক ইস্যুতে প্রচার করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। আমফান সহ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে প্রচার করেন জে পি নাড্ডা। 

আরও পড়ুন-নাড্ডার সফরে হামলার প্রতিবাদ বাংলা জুড়ে, ফুঁসছে রাজ্য-বিজেপি

ঠিক তার পরের দিন, বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী নিজের বিধানসভা কেন্দ্র ভবানীপুরে দুয়ারে সরকার প্রকল্প নিয়ে হাজির হন। স্বাস্থ্যসাথী, কন্যাশ্রী, যুবশ্রী প্রকল্পে সরকারি প্রকল্প প্রশাসনের আধিকারিকরা দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে প্রদান করছেন। এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় নিজের হাতে স্বাস্থ্যসাথী সহ অন্যান্য প্রকল্প সরাসরি ভবানীপুরবাসীকে প্রদান করেন। পাশাপাশি, বিজেপিকে বহিরগত বলে কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রী। কেন্দ্রীয় সরকার টাকা না দিয়ে বঞ্চনার অভিযোগ তুলছে। বাংলা এখন বিশ্বের দরবারে গিয়ে পৌঁছেছে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। তারপরেও বাংলার প্রতি বঞ্চনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখন রাজ্যে এসে আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে। বিজেপি ও আরএসএস কলকাতার বিভিন্ন হোটেলে থেকে বাংলা দখলের চেষ্টা করছে। তাঁদের বিশ্বাস না করতে ভবানীপুরবাসীকে বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।