পেঁয়াজের ক্রমবৃদ্ধিমান বাজারদরের চোটে, বাদ পড়ল  কফি হাউসের সিগনেচার ডিশ অনিয়ন পকোড়া। আর তারই সঙ্গে সঙ্গে মাটন আফগানি, চিকেন আফগানি, বেকড ফিশও আপাতত তাই বাদের তালিকায়। রান্নায় বেশি পেঁয়াজ দরকার হওয়া এই মেনুগুলির বিক্রি এখন বন্ধ থাকবে বলেই কফি হাউস কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, রাতে শহরে 'ফ্রি রাইড'-এর প্রলোভন, মহিলাদের সতর্ক করল কলকাতা পুলিশ

আসলে এইমুহূর্তে বাজারে পেয়াজের দাম দুশো টাকার আশেপাশে। আর এতেই মেনু থেকে অনিয়ন পকোড়া বাদ দিয়ে দিল ইন্ডিয়ান কফি হাউস। কলেজস্ট্রিট বইপাড়ায় গিয়ে কফি হাউসে গিয়ে অনিয়ন পকোড়ার স্বাদ নেয়নি, এমন বাঙালির সংখ্য়া বড়ই কম।  কফি হাউসে আসলে, কমবেশী সবারই প্রথম পছন্দ অনিয়ন পকোড়া। ৩২ টাকা ওনিয়ন পকোড়া দৈনিক বিক্রিও হয়েছে শতাধিক প্লেট, জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তাদের বক্তব্য, পিঁয়াজের আকাশছোঁয়া দামবৃদ্ধিতে আর সামাল দেওয়া যাচ্ছে না। 

আরও পড়ুন, ছুটির দিনেও কপালে ঘাম, তাপমাত্রার পারদ বেড়ে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস

তবে কফি হাউসের এই পদক্ষেপ অবশ্য প্রথমবার নয়। কফি হাউস কর্তৃপক্ষের দাবী, কয়েক বছর আগেও পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে একবার, দু-চার দিনের জন্য অনিয়ন পকোড়া বন্ধ রাখা হয়েছিল। তবে এবার পেঁয়াজের মূল্য়বৃদ্ধিতে রেকর্ড হয়ে দাড়াল। তাই কবে আবার কফি হাউসে অনিয়ন পকোড়া চালু হবে, তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না কেউ। 

আরও পড়ুন, কার হাত ধরে কলকাতায় প্রথম বিরিয়ানি আসে, জানেন কি

পেঁয়াজের দামের ঝাঁজে আমবাঙালির গেরস্থ থেকে শুরু করে রেস্টুরেন্ট , সবাই প্রায় নাজেহাল। আগে সারা সপ্তাহে যে পরিমানে পেঁয়াজ লাগত, এখন তার অর্ধেকের অর্ধেক কিনতে হচ্ছে। রাস্তার পাইস হোটেলগুলিতে পেঁয়াজের ব্য়বহার প্রায় বন্ধ। স্যালাডে উধাও পিঁয়াজ।  মূলো দিয়ে অধিকাংশ দোকান এখন সামাল দিচ্ছে ।