দোলেও রং লাগল না  মনে। বেরঙা হোলিতেই দিন কাটাচ্ছেন জোঁকা ইএসআই হাসপাতালের ঠিকা কর্মীরা। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ, যে বাধ্য় কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভের রাস্তায় নামতে হয়েছে ঠিকা কর্মীদের।

হোলিতে রোদ ঝলমলে আবহাওয়া কলকাতায়, সপ্তাহ শেষে ফের বৃষ্টির সম্ভাবনা

মঙ্গলবার সকাল থেকে জোকা ইএসআই হসপিটালএ ২০০ জন ঠিকাকর্মীদের বিক্ষোভ। তাদের দাবি, দীর্ঘ দিন ধরে ঠিক সময়ে বেতন পাচ্ছেন না তাঁরা। ৫ জন কর্মীদের হসপিটাল থেকে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিন মাস ধরে কর্মীদের বেতন ঠিকমতো পাচ্ছেন না তাঁরা। হাসপাতাল থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, যখন তখন কাজ থেকে বসিয়ে দেওয়া হবে । যা যা সুবিধা পাওয়ার সেই সুবিধাগুলো পাচ্ছেন না কর্মীরা। 

পার্ক সার্কাস থেকে উড়ে আসছে প্রস্রাবের প্য়াকেট,ট্রেনে ভিজলেন যুবতী

কর্মীরা জানিয়েছেন, মাসে ২৬ দিন কাজ করলেও তাঁদের ২০ দিনের বেতন দেওয়া হচ্ছে। ইউনিফর্মের নামে একটা শাড়ি গছিয়েই ছেড়ে দিচ্ছে হাসপাতাল। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে চাকরি থেকে সরিয়ে দেওয়ার ভয় দেখানো হচ্ছে। ফলে ন্যায্য় দাবি আদায়ে পথে নাম তে হয়েছে তাঁদের। 

গরম বাড়লেই করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি, বলছেন চিকিৎসকরা

ঠিকা কর্মীদের অবিযোগ বার বার বলা সত্ত্বেও এ বিষয়ে ম্যানেজমেন্ট  কোনওরকম পদক্ষেপ নিচ্ছে না।  যার জন্য হাসপাতালের সুপারকে ঘেরাও করে রেখেছে প্রায় ২০০ জন অস্থায়ী কর্মী।  এদিন সকাল  থেকেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কর্মীরা। তাদের দাবি, যতক্ষণ না তাদের কথা শুনছে কর্তৃপক্ষ - ততক্ষণ তারা কাজে যোগ দেবেন না। এই বিক্ষোভের জেরে বর্তমানে হাসপাতালে একটি অস্থির পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।