Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Mamata Banerjee- সরকারের পক্ষে থাকলে মিলবে বিজ্ঞাপন, মমতার মন্তব্যে বিতর্কের গন্ধ

সরকারের কাজের পক্ষে লিখলে পাওয়া যাবে বিজ্ঞাপন। প্রশাসনিক সভা থেকে ঘোষণা মমতার। মুখ্যমন্ত্রী অসাংবিধানিক কথা বলছেন তোপ বিজেপির।

Controversy around CM Mamata banerjee remark on Govt ads on media
Author
Howrah, First Published Nov 18, 2021, 8:58 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সরকারি বিজ্ঞাপন(Government Advertising) নিয়ে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ কমবেশি সব সরকারের আমলে হয়েছে। বিতর্ক পিছু ছাড়েনি বর্তমান শাসকদলেও। তবে বৃহঃষ্পতিবার হাওড়ার প্রশাসনিক সভা থেকে সরকারি বিজ্ঞাপন পাওয়ার জন্য সুনির্দিষ্ট রাস্তা দেখিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)। সরকারি বিজ্ঞাপন না পাওয়ার অভিযোগের উত্তর দিতে গিয়ে তিনি স্পষ্ট করে বলেন যারা সরকারের হয়ে লিখছেন, যারা সরকারের ভালো কাজগুলো সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরছেন তাদেরকে অবশ্যই বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে। তবে তার এই মন্তব্যের পর থেকেই বিরোধী শিবিরে দানা বাঁধছে বিতর্ক। প্রশ্ন উঠছে তবে কী সরকারের কাজের সমালোচনা করে কোনও প্রতিবেদন ছাপা হলে বিজ্ঞাপন পাবে না সংশ্লিষ্ট পত্রিকা ?

তবে এদিন সাংবাদ মাধ্যমের একাংশকে নিশানা করে মমতা বলেন, “অনেকে শুধু নেগেটিভ কথাবার্তাই তুলে ধরেন। সব নেগেটিভকে পজেটিভ করা যায়।” তিনি আরও বলেন, “বড় সংবাদমাধ্যম আজকের সভায় যা কিছু হল তা একবার দেখিয়ে চলে যাবে। কিন্তু গ্রামীন এলাকায় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা রয়েছে যারা সাধারণ মানুষের কাছে তাদের পত্রিকা পৌঁছে দেয়। তাই সেই সমস্ত পত্র-পত্রিকা যারা সরকারের ভালো কাজগুলোকে সুন্দরভাবে সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরবে নিরবচ্ছিন্নভাবে তাদেরকে অবশ্যই বিজ্ঞাপন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।”

আরও পড়ুন - প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পাশাপাশি নির্বাচনী ইস্তেহারেও বড় চমক তৃণমূলের

এই বিষয়ে তিনি হাওড়ার(Howrah) জেলা শাসককেও উদ্যোগ নিতে নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ওই সমস্ত পত্র-পত্রিকার কর্ণধারদেরকে বলেন তারা যেন তাদের প্রকাশিত কপি অবশ্যই নিয়মিতভাবে জেলা সংস্কৃতি দফতর, জেলা শাসকের দফতর ও শহরের ক্ষেত্রে পুলিশ কমিশনার অথবা গ্রামীণ এলাকা হলে জেলা সুপারের কাছে নিয়মিত তাদের প্রকাশিত সংস্করণ পাঠিয়ে দেন। যাতে তারা কতটা ভালোভাবে সরকারি কাজের প্রকল্পগুলো তুলে ধরছেন সেটা বোঝা যায়।

আরও পড়ুন- পুরভোটের আগেই বিল পাশ, পাকাপাকি ভাবে আলাদা হয়ে গেল বালি-হাওড়া

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন থেকেই সরকারি বিজ্ঞাপন(advertisement) পাওয়া নিয়ে অসন্তোষ ছিল রাজ্যের বিভিন্ন জেলার থেকে প্রকাশিত ছোট পত্র-পত্রিকার মধ্যে। আজকে এই নির্দেশের ফলে সেই অচলাবস্থা কাটানো সম্ভব হবে বলে মনে করছেন ছোট পত্র-পত্রিকায় যুক্ত মানুষেরা। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণাকে কটাক্ষ করে বিজেপির নেতা ওমপ্রকাশ সিং বলেন “এটা গণতন্ত্রের পক্ষে অপমানজনক। একজন মুখ্যমন্ত্রী এটা বলতে পারেন না।  এটা সরাসরি গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভকে ভয় দেখানো। সে যদি তার পক্ষে না লেখে তাহলে সরকারি বিজ্ঞাপন পাবে না। এই কথা বলার জন্য তার ক্ষমা চাওয়া উচিত।”

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios