বেলেঘাটা আইডি-র আইসোলেশন বিভাগ থেকে ছেড়ে দেওয়া হল সকলকে। এত দিন যাবৎ যারা ভর্তি ছিলেন, সেই চার জনকে যাবতীয় পরীক্ষার করার পর আজ শনিবার ছেড়ে দেওয়া হল। এদের সকলেরই নমুনা পরীক্ষা করে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। তাই আজ প্রত্য়েকেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, ফের চলন্ত ট্রেনে পাথর বাজের হামলা, গুরুতর আহত এক মহিলা যাত্রী

সূত্রের খবর, শনিবার সকালেই ছেড়ে দেওয়া হয় পেরুর বাসিন্দাকে। এরপর দুপুরে কুয়েত ফেরত বাকি তিনজনকেও বেলেঘাটা আইডি-র আইসোলেশন বিভাগ থেকে  ছেড়ে দেওয়া হয়। অবশ্য় এই তিনজনের কোনও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানো হয়নি। চিকিৎসকদের দাবি, কুয়েত ফেরৎ ওই তিন জনের শরীরে করোনা আক্রান্তর কোনও উপসর্গ পাওয়া যায়নি। তাই তাদেরকে চব্বিশঘন্টার পর্যবেক্ষনে রেখে আজ দুপুরে ছেড়ে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য় এদের মধ্য়ে একটি ৯ মাসের শিশুও রয়েছে। 

আরও পড়ুন, বৈশাখী-মমতা সাক্ষাৎকে গুরুত্ব নয়, শোভন নিয়ে চুপ দিলীপ


প্রসঙ্গত এই মুহূর্তে বিশ্বের প্রায় ১২৩টি দেশে কামড় বসিয়েছে প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনা। এক লক্ষ পচিশহাজারেরও বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত। চিনে মৃতের সংখ্যা তিনহাজার ছাড়িয়েছে। ভারতেও আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়ে আশি ছাড়িয়েছে। করোনার আতঙ্কে ইতিমধ্য়েই জেরবার কলকাতা-সহ গোটা রাজ্য। অপরদিকে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য় মন্ত্রকের তরফে রাজ্য় এবং সংস্থাকে আগাম করোনা ভাইরাস নিয়ে আগাম সতর্কতা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্টেডিয়াম, থিয়েটার, সিনেমা হল সহ সব জায়গাতেই কোনওরকম জমায়েতের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এদিকে নোভেল করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে নবান্নে জরুরি বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। করোনা মোকাবিলায় যেকোন ধরণের জমায়েত এড়াতে সোমবার থেকে রাজ্যের সমস্ত স্কুল কলেজ বন্ধের নির্দেশও দিয়েছে রাজ্য় সরকার।  

আরও পড়ুন, ভিসা বাতিলের পর দেশে ফিরতে মরিয়া বিদেশিরা, বিমানের টিকিটের চাহিদা হঠাৎই আকাশছোঁয়া