করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্ক কাঁপছে বিশ্ব। প্রায় একশোটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড ১৯ ভাইরাস। তার মধ্যে রয়েছে ভারতও। এদেশে ক্রমেই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। তবে এখনও পর্যন্ত এরাজ্যে কারও শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তবে  পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবরকমের প্রস্তুতি নিয়েছে রাজ্য সরকরাও। এরমধ্যেই বুধবার থেকে এসএসকেএম হাসপাতালে শুরু হয়ে গেল করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা।

আরও পড়ুন: একসঙ্গে মরে পড়ে রয়েছে অসংখ্য বাদুড়, করোনা আতঙ্কের মাঝেই নতুন বিপদের গন্ধ কেরলে

এতদিন গোটা পশ্চিমবঙ্গে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা হত কেবল বেলেঘটা আইডি হাসপাতাল ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ কলেরা অ্যান্ড এনটেরিক ডিজিসেস নাই নাইসেডে। এবার থেকে রাজ্যের তৃতীয় হাসপাতাল হিসাবে এসএসকেএমেও মিলবে এই সুবিধা।

আরও পড়ুন: ফের পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ও ঘূর্ণাবর্তের ভ্রুকুটি, বৃষ্টিতে ভিজতে চলেছে গোটা রাজ্য

এসএসকেএমের মাইক্রোবায়োলজি বিভাবে পরীক্ষা হবে করোনা ভাইরাসের। পাশাপাশি জেলাহাসপালাগুলিতেও এই ভাইরাসের পরীক্ষার ব্যাপারে উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। চলতি মাসেই উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালেও শুরু হবে এই মারণ ভাইরাসের পরীক্ষা।

নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় গত শুক্রবারই  নবান্নে জরুরী বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠক শেষে করোনা নিয়ে  অযথা উদ্বেগের কোনও কারণ নেই বলে রাজ্যবাসীকে আশ্বস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেদিনই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন,  রাজ্যের সরকারি মেডিক্যাল কলেজগুলি ছাড়াও বেশ কয়েকটি জেলা হাসপাতালেও করোনা ভাইরাস চিকিৎসার ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। সাবধানতা অবলম্বন করতে জেলায় অ্যাডভাইসরি পাঠানোর পাশাপাশি গড়া হয়েছে ক্যুইক রেসপন্স টিম। করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের তরফে হেল্পলাইনও ইতিমধ্যে খোলা হয়েছে।