ফের বেফাঁস মন্তব্য বিজেপির রাজ্য় সভাপতি দিলীপ ঘোষের মুখে। এবারও তাঁর আক্রমণের নিশানায় রাজ্য় পুলিশ। বেলঘড়িয়ায় বিজেপির সভায় পুলিশকে নিজেদের কাজ ছেড়ে সবজি বিক্রি করতে বললেন রাজ্য় বিজেপির কান্ডারি। যা নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে।

ভোটের আগে ভুয়ো খবর, চিন্তায় 'ঘুম ছুটেছে' মমতার

তবে এই প্রথমবার নয়। অতীতেও মেদিনীপুরের সাংসদের মুখে শোনা গিয়েছে পুলিশকে বাক্যবানের একাধিক নিদর্শন। যেখানে বিজেপির কর্মীদের ওপর অত্যাচার করলে সরাসরি পুলিশ ঠ্যাঙানোর নিদান  দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। এবার অবশ্য় মারপিট নয়, একেবারে পুলিশকে নিজের কর্মস্থল ছেড়ে সবজি বিক্রির কথা বললেন এই বিজেপি নেতা। দিলীপবাবির মতে, রাজ্য়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে যোগসাজশ করে বিজেপির কর্মীদের ওপর অত্যাচার করছে পুলিশ। একেবারে দলদাসে পরিণত হয়েছে রাজ্য়ের ওসি-আইসি-রা। বাড়িতে ছেলে মেয়েদের কেউ বাবা কী করে প্রশ্ন করলেও তারা বলতে পারছে না। কারণ পুলিশ শুনলেই হাসির রোল উঠছে।

কলকাতার সেরা ৭ খাবার, না খেলে নষ্ট জীবন

তাই পুলিশি ছেড়ে সবজি বিক্রেতা হলে ওসি-আইসিরা সম্মান পাবেন বলে মনে করেন দিলীপ  ঘোষ। তাঁর মতে, এতে পুলিশের মান বাড়বে। কমপক্ষে পুলিশের কাজ ছাড়লে ছেলেমেয়েরা বলতে পারবেন, তাঁদের বাবা সব্জি বিক্রি করে সংসার  চালায়। এই বলেই অবশ্য় থেমে থাকেননি রাজ্য় বিজেপির সভাপতি, দিলীপ ঘোষ বলেন, উত্তর ২৪ পরগনায় যতগুলো ওসি-আইসি আছে, তারা সব তৃণমূলের চামচা। এদের বউরাও আজকাল বলে-তুমি ইউনিফর্ম পোরো না। আমার শাড়িতে পরে যাবে। এদের কোনও মেরুদণ্ড নেই।

ঘরেই যখন 'বিভীষণ',মমতার ভাগ্যে কটা আসন

"