কেষ্টপুর বিবেক মেলায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে  ভষ্মীভূত অধিকাংশ দোকান। অভিযোগ, অগ্নিনির্বাপনের কোনও যথাযথ ব‍্যবস্থা সেখানে ছিল না। মূলত প্লাস্টিকের তৈরি ত্রিপল দেওয়া একটি  অস্থায়ী দোকানে প্রথমে আগুন লাগে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই দ্রুত আগুন ছড়ায় বাকি দোকানগুলিতেও। মোট  ২০টিরও বেশি দোকান ভষ্মীভূত হয়েছে ওই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে।

বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদ, যাদবপুরে বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

কেষ্টপুর জোরখানা খেলার মাঠে শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছিল বিবেক মেলা। স্থানীয় সূত্রে খবর,  মঙ্গলবার রাত ১২টা চল্লিশ নাগাদ বিবেক মেলায় ওই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড লাগে। স্থানীয় বাসিন্দারা হঠাৎই দেখতে পান মেলার অস্থায়ী একটি স্টলে আগুন লেগেছে।  প্লাস্টিক ত্রিপল দিয়ে তৈরি স্টল হওয়ার দরুণ দ্রুত আগুন ছড়াতে থাকে কেষ্টপুর বিবেক মেলার অন্য় দোকানগুলিতেও। স্থানীয় এবং মেলার উপস্থিত দোকানীরা শত চেষ্টা করেও আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি। অভিযোগ, বিশালাকার বিবেকমেলায় ওই মুহূর্তে আগুন নেভানোর কোনও যথাযথ ব‍্যবস্থাও ছিল না।

আরও পড়ুন, ভুয়ো তথ্য় দিয়ে খাস কলকাতার বুকে ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, গ্রেপ্তার ৪


বিবেক মেলায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে যেহেতু সেই মুহূর্তে আগুন নিয়ন্ত্রনের কোনও তেমন ব্য়বস্থা ছিল না। তাই রাত ১২টা ৪৫ নাগাদ খবর দেওয়া হয় দমকল অফিসে। অভিযোগ,  খবর  দিলেও দমকলবাহিনী এসে পৌছায় রাত ১টা ১০ নাগাদ। আর ততক্ষণে বিবেক মেলার ২০টিরও বেশি দোকান পুড়ে ছাই। দীর্ঘ এক ঘণ্টার চেষ্টায় শেষমেষ আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে দমকলের ৫টি ইঞ্জিন। যেহেতু কেষ্টপুরের ওই মেলা ঘনজনবসতির মধ্য়ে গড়ে উঠেছে তাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। সূত্রের খবর,  তবে এলাকাবাসীর বাড়ির তেমন কোনও ক্ষতি হয়নি।