দিনভর টানাপোড়েনের পর অবশেষে বরফ গলল। টিটাগড়ে বিজেপি নেতা খুনের ঘটনায় রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে দেখা করলেন রাজ্য়ের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইট করে রাজ্যেপাল নিজেই এ খবর জানিয়েছেন। রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা ও 'ছক কষে' অবিলম্বে বন্ধ হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

ভরসন্ধেবেলা থানার সামনে শুটআউট। উত্তর চব্বিশ পরগণার টিটাগড়ে খুন হয়ে গেলেন বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লা। ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার বিজেপি-এর ডাকে বারো ঘণ্টার বনধ পালিত হল ব্যারাকপুরে। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কোনদিকে যাচ্ছে? উদ্বেগ প্রকাশ করে রবিবার রাতে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব ও ডিজিপি-কে তলব করেন রাজ্য়পাল জগদীপ ধনখড়। সোমবার সকাল ১০টা দু'জনের রাজভবনে হাজির হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেননি কেউ। স্রেফ ক্ষোভ উগরে দেওয়াই নয়, টুইট করে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সঙ্গে কথা বলার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন রাজ্যপাল। 

 

সোমবার দুপুরে বিজেপিকে নেতা খুনের ঘটনার পুলিশি রিপোর্ট নিয়ে রাজভবনে হাজির হন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, যাবতীয় তথ্য রাজ্যপালকে দেন মুখ্যসচিব। আলোচনা হয় তদন্তের গতিপ্রকৃতি নিয়েও।  এরপরই বরফও কিছুটা গলে। টুইট করে মুখ্যসচিবের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা জানান রাজ্যপাল।  আশা প্রকাশ করেন, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির দিকে নজর দেবেন মুখ্যমন্ত্রী।