Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মনোনয়ন জমা দিলেন জহর সরকার, প্রতিপক্ষ BJP-র পার্থী কে, রাত পেরোলে কি যাবে জানা

বুধবার মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন জহর সরকার। উল্লেখ্য, রাজ্যসভার তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পর এবার মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় আমলা তথা প্রসার ভারতীয় প্রাক্তন সিওও জহর সরকার। 
 

Jawhar Sircar files nomination as TMC Candidate for Rajya Sabha by Election RTB
Author
Kolkata, First Published Jul 28, 2021, 6:42 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বুধবার মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন জহর সরকার। উল্লেখ্য, রাজ্যসভার তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পর এবার মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় আমলা তথা প্রসার ভারতীয় প্রাক্তন সিওও জহর সরকার। 

আরও পড়ুন, 'মোদীর বিরুদ্ধে লড়াই অব্যাহত রাখতে চাই', বার্তা দিলেন রাজ্যসভায় মমতার প্রার্থী জহর সরকার

 মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন জহর সরকার

বুধবার দুপুর সাড়ে তিনটেয় বিধানসভায় গিয়ে রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেন  জহর সরকার। এদিন তাঁর সঙ্গে ছিলেন তৃণমূলের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ। উল্লেখ্য,  ৫ মাস আগে হঠাৎ করেই একদিন মমতার সরকারের বিরোধীতা করে রাজ্যসভায় সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেন দীনেশ ত্রিবেদী। এবার সেই দীনেশ ত্রিবেদীর ছেড়ে যাওয়া আসনে জহর সরকারকে প্রার্থী করেছেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। দিল্লি সফরে যাওয়ার আগেই জহর সরকারের নাম প্রার্থী পদে চূড়ান্ত করেন মমতা। সর্ব ভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে টুইট করে জানানো হয়, রাজ্যসভায় আমরা জহর সরকারকে মনোনীত করেছি। প্রায় ৪২ বছর জনসেবায় নিযুক্ত ছিলেন তিনি। জনসেবায় তাঁর অবদান দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে।'

আরও পড়ুন, '৩১ জুলাইয়ের পর আর নয়', ভোট পরবর্তী হিংসার মামলায় রাজ্যকে সময় বেঁধে দিল হাইকোর্ট

'ওই দুটি দল আমাকে পছন্দ করে না'

 রাজ্যসভার তৃণমূল প্রার্থী পদে নাম ঘোষণার পর মোদী সরকার নিশানা জহর সরকার বলেন,পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় আর মাত্র দুটি দলেরই বিধায়ক রয়েছেন। বিজেপি এবং আইএসএফ। আমার ধারণা, ওই দুটি দল আমাকে পছন্দ করে না।' ২০১৬ সালের নভেম্বরে প্রসার ভারতীর অধিকর্তা পদ থেকে ইস্তফা দেন জহর। এপ্রসঙ্গে তিনি ওই পোস্টে লিখেছেন,  নরেন্দ্র মোদীর একনায়কতন্ত্র, হিন্দুত্ব এবং দেশ জুড়ে অর্থনৈতিক অব্যবস্থার কারণেই আমি পাঁচ বছরের মেয়াদ ফুরোনোর আগেই প্রসার ভারতীর অধিকর্তা পদ থেকে ইস্তফা দিই। এরপর থেকে এনডিএ-র বিরুদ্ধে আমি ধারালো এবং বিশ্লেষনমূলক প্রচার ধারাবাহিকভাবে করেছি।' 

আরও পড়ুন, সোনিয়া-কেজরিওয়ালের আগে দলীয় সাংসদের সঙ্গে বৈঠকে মমতা, কোন পথে বিরোধী জোট


বৃহস্পতিবার বিকেল অবধি সময়, এখনও রাজ্যসভা নির্বাচনের জন্য কারও নাম ঘোষণা করেনি BJP


প্রসঙ্গত, আইএএস জহর সরকারের সঙ্গে তৃণমূলের সম্পর্ক আগে থেকেই ভাল ছিল। রাজ্যের  প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্য়োপাধ্যায়ের কেন্দ্রের চাপ বৃদ্ধির সময়টাতেও ৮৭-র আইএসএস-র ব্যাচের পাশ করা আলাপনের পাশেই দেখা গিয়েছে জহর সরকারকেই। সম্প্রতি রাজ্যসভার উপনির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে নির্বাচন কমিশন। তৃণমূলের প্রাক্তণ সাংসদ তথা বিজেপি নেতা দীনেশ ত্রিবেদীর ছেড়ে যাওয়া আসনে নির্বাচনের দিন নির্দিষ্ট হয় ৯ অগস্ট। এদিকে এখনও রাজ্যসভা নির্বাচনের জন্য কারও নাম ঘোষণা করেনি বিজেপি। বৃহস্পতিবার বিকেল অবধি মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় আছে।  ৯ অগস্ট একইদিনে ওই আসনে উপনির্বাচন এবং ফল ঘোষণা হবে।

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

 

"

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios