Asianet News Bangla

৭ নভেম্বর পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজে স্থগিতাদেশ

  • ৭ নভেম্বর পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজে স্থগিতাদেশ
  • বউবাজারে বিপর্যয় মোকাবিলায় রাজ্যের কী ভাবনা
  • হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে কলকাতা হাইকোর্টে
Kolkata high court gives interim stay on east-west metro work till 7th november
Author
Kolkata, First Published Sep 17, 2019, 3:52 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


আগামী ৭ নভেম্বর পর্যন্ত ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো রেলের কাজের ওপর অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়াল কলকাতা হাইকোর্ট। বউবাজারে বিপর্যয় মোকাবিলায় রাজ্যের কী ভাবনা রয়েছে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে কলকাতা হাইকোর্টে। এমনই নির্দেশ দিয়েছে প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণন ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। পাশাপাশি কলকাতা পুরনিগমকে এই মামলায় যুক্ত করতে বলেছে আদালত। 

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে কী নিয়ে কথা, দিল্লি যাওয়ার আগে জানালেন মমতা, দেখুন ভিডিও

মাঝরাতে অশালীন মেসেজ, ভিডিও কল, রায়গঞ্জের ভূগোল স্যরই ছাত্রীদের আতঙ্ক

 

মঙ্গলবার মেট্রোরেলের আইনজীবী রঞ্জন বাচাওয়াত বলেন, টানেলের জল বন্ধ করা সম্ভব হয়েছে । বিশেষজ্ঞরা দিনরাত টানেলে নজর রাখছেন ও প্রতি মুহুর্তের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছেন।  ইতিমধ্যেই ৭৮ টি ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির পরিবারকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে । বউবাজারের কয়েকটি সোনার দোকানকে ফের খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ৮৩ টি পরিবারের হাতে মেট্রোরেলের তরফে এখনও পর্যন্ত ৫ লক্ষ টাকা করে চেক দেওয়া হয়েছে। যারা এই বিপর্যয়ে ক্ষতিগ্রস্ত তাদের প্রত্যেকের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ।  যদিও ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো নিয়ে জনস্বার্থ মামলাকারী সংস্থার আইনজীবী ঋজু ঘোষাল বলেন, মেট্রোরেল এখনও পর্যন্ত যা যা করেছে তা হলফনামা দিয়ে আদালতকে লিখিত জানাক। 

শোওয়ার ঘরে বিষধর সাপ, হাসপাতালে নিয়ে গিয়েও হল না শেষ রক্ষা

রাজীবকে বাঁচাতে নয়,রাজ্যের উন্নয়নের জন্যই মোদীর কাছে মমতা, বললেন কৈলাস

কলকাতা হাইকোর্টে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো নিয়ে আগেই একটি জনস্বার্থ মামলা বিচারাধীন ছিল। কিন্তু সেপ্টেম্বরের শুরুতে বউবাজারে মাটির তলায় মেট্রোরেলের কাজ করার সময় বড়সড় বিপর্যয় হয়। এর জেরে তাসের ঘরের মতো বহু বাড়ি ভেঙে পড়ে। হাইকোর্ট গত ৩ সেপ্টেম্বর বউবাজারে মোট্রোর কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল। এছাড়া বিশেষজ্ঞদের তদন্ত রিপোর্টও কোর্টে পেশ করার নির্দেশ দিয়েছিল। তবে মেট্রোরেলের তরফেও আদালতের কাছে জানানো হয়েছিল, কোর্ট নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ থাকবে। সেই অনুযায়ী এখনও কাজ বন্ধ রয়েছে। আদালত কাজ বন্ধের ওপর অন্তর্বর্তী নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ এদিন আরও বাড়িয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios