এক বছরের অপেক্ষা এবার শেষ হতে চলেছে। দরজায় কড়া নাড়ছে পুজো। হাতে আর মাত্র কটা দিনের অপেক্ষা। তার পরেই শুরু হয়ে যাচ্ছে বাঙালিদের সবথেকে বড় উৎসব দুর্গা পুজো। কলকাতার থিমের পুজো দেখতে দেশ দেশান্তর থেকে লোক আসে। প্রতি বছরেই কলকাতার থিমের পুজোগুলোতে থাকে নানান নতুনত্ব। এবারও তার অন্যথা হচ্ছে না। কলকাতার পুজোগুলোর থিমের কাজে এখন দেখাযাচ্ছে ব্যস্ততা। আর সেই সঙ্গে তাল মিলিয়েই কলকাতার কালী সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটিরও কাজ শুরু হয়েগিয়েছে। এবার সেখানকার থিম 'জলের বড় কষ্ট করনা জলের নষ্ট।'

আরও পড়ুন- শারদোৎসবে অভিনব শিল্প-ভাবনায় সেজে উঠছে সল্টলেকের এডি ব্লক

অন্যান্য বছর কালী সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটির পুজোতে থাকে সাবেকিয়ানার ছোঁয়া। এবার তারা তাতেই আনতে চলেছে বদল। সাবেকিয়ানার বদলে এবার সেখানেও দেখা মিলবে থিমের পুজো। এবার সেখানকার থিম 'জলের বড় কষ্ট করোনা জলের নষ্ট'। গরমকাল এলেই নানা জায়গায় জলের কষ্টের মুখে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। এত জল সঙ্কটের পরেও মানুষের হুঁশ ফেরেনা। সর্বত্র প্রায় দেখা যায় জলের অপচয়। এই অপচয় যদি ক্রমাগত চলতে থাকে তবে একটা সময় কলকাতার মানুষকেও জল সঙ্কটের সম্মুখীন হতে হবে। আর এই জলের অপচয় বন্ধ করতেই তাদের এবারকার এই থিম। কালী সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটির একজন আধিকারিক জানিয়েছেন তারা মনে করছেন এই বার্তার মধ্যেদিয়ে তারা মানুষকে বেশ কিছুটা সচেতন করে তুলতে পারবেন। যার ফলে মানুষ জল নষ্ট করার আগে দুবার ভাববে।

আরও পড়ুন- নাম লেখাননি এখনও, দেরি না করে অংশ নিন এশিয়ানেট নিউজ শারদ সম্মান ২০১৯-এ

এবার যে সেখানে বেশ একটা আকর্ষনীয় থিম হচ্ছে তা আর বলার অবকাশ রাখেনা। সেই থিম চাক্ষুষ করতে আর মাত্র কটা দিনের অপেক্ষা। এবার পুজোয় কি ভাবে মানুষকে সচেতন করে তোলে তারা সেটা দেখার জন্য আপনাকে যেতেই হবে কালি সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটিতে। এই কালী সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটির থিম চাক্ষুষ করতে হলে আপনাকে যেতে হবে ধাপার নর্থ ট্যাংরা  রাজার ঘাটে।