আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা, তারপরেই উমা সপরিবারে হাজির হবেন মর্ত্যে। সারা বছর ধরে অধীর আগ্রহে মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন দুর্গা পুজোর জন্য। তার মধ্যে কলকাতার পুজো-কে ঘিরে উন্মাদনা থাকে আরও তুঙ্গে। থিম পুজোর দৌড়ে কম বেশী এগিয়ে সব ক্লাবই। একইসঙ্গে রেসিডেন্টস ক্লাবের পুজোগুলিও কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পাল্লা দিয়েছে থিমের প্রতিযোগীতায়।

দেখে নিন- নাম লেখাননি এখনও, দেরি না করে অংশ নিন এশিয়ানেট নিউজ শারদ সম্মান ২০১৯-এ

আরও পড়ুন- মায়ের আরাধনায় সল্টলেক এসি ব্লকে থাকছে কবিগুরুর ছোঁয়া
পূজোর আর বেশি দেরি নেই, তারমধ্যে আবার বাধ সাধছে যখন তখনের বৃষ্টি। তার মধ্যেই দ্রুতভাবে এগিয়ে চলেছে সল্টলেক এডি ব্লক রেসিডেন্টস ক্লাবের পূজোর কাজ। শিল্পী শঙ্কর পালের তত্ত্বাবধানে অভিনব ভাবনায় সেজে উঠছে এই ব্লকের পুজো।

আরও পড়ুন- সাবেকিআনা নয়, এবার পুজোয় থিমের পথেই হাটছে কালি সংঘ রাজার ঘাট দুর্গোৎসব কমিটি
 সল্টলেকের এডি ব্লকের এইবারের পুজোর থিম "সূচনা"। যে কোনও শুভ কাজের সূচনা হয় শঙ্খধ্বনির মাধ্যমে। তাই এবারে এখানকার মণ্ডপে থাকছে অসংখ্য শঙ্খের ছোঁয়া। ক্লাব সম্পাদক দেবজিৎ চৌধুরী জানান শঙ্খের সঙ্গে সঙ্গে তাদের মণ্ডপে থাকছে অসংখ্য গ্লাস পেন্টিং। ক্লাবের দুর্গা পুজো কমিটির সম্পাদক আর্যপ্রতিম গাঙ্গুলি জানান এইবার তাদের পুজোর বাজেট  প্রায় ১৬ লক্ষ টাকার মত। যার মধ্যে অধিকাংশই লাগছে শিল্পীর সম্মানদক্ষিণা এবং মণ্ডপ সজ্জার কাজে। এছাড়াও পুজোর দিনগুলিতে সকলকে বসিয়ে খাওয়ানোর ব্যবস্থাও থাকছে। চতুর্থীতে পুজোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মাননীয় দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু।
শঙ্খের নিঁখুত কাজের শিল্পকলা দেখতে চাইলে একবার আপনাকে আসতেই হবে এডি ব্লকের রেসিডেন্টস ক্লাবের এই পুজোতে।