নবান্নে কৃতী পড়ুয়াদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রাজ্যে "জয় হিন্দ" নামে বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷ একই সঙ্গে রাজ্যের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করা পড়ুয়াদের বাংলায় কর্মসংস্থানের অভাব হবে না বলেও আশ্বাস দেন ৷ নবান্ন থেকে কৃতীদের ভার্চুয়ালি সংবর্ধনা জানান তিনি ৷ বাংলা সারা বিশ্বকে পথ দেখাবে বলেও মন্তব্য করেন ৷ 

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "বাংলার বিভিন্ন প্রকল্প বিশ্বে সম্মান পেয়েছে ৷ একাধিক ইঞ্জিনিয়ার, ডাক্তার, অর্থনীতিবিদ বিশ্বে নাম করেছেন ৷ বাংলা থেকেই বারবার নোবেল পুরস্কার দেশে এসেছে ৷" তিনি আরও বলেন, "আমরা ছোটোবেলা থেকে স্বামীজি, গান্ধিজি, নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর নাম শুনে বড় হয়েছি ৷ নেতাজি জয়ন্তী, গান্ধি জয়ন্তী পালন করে এসেছি ৷ রাজ্যে একাধিক মণীষীর নামে বিশ্ববিদ্যালয় আছে ৷ 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, সুভাষচন্দ্র বোস, স্বামী বিবেকানন্দ, রাষ্ট্রগুরু সুরেন্দ্র নাথ সহ বিভিন্ন মণীষীর নামে বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে ৷" নেতাজী সুভাষ কলকাতা এয়ারপোর্ট নামটাও তিনি করিয়েছিলেন বলে সাংবাদিক বৈঠকে বলেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ বলেন, "আমি যখন যাদবপুরের সাংসদ ছিলাম তখন আমি এই নামটি করাই ৷"পড়ুয়াদের উদ্দেশে তিনি বলেন, "আগামী দিনে তোমরা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে যাবে ৷ কিন্তু যেখানেই যাও বাংলাকে মনে রেখো ৷ মা কে মনে রেখো ৷" এই অনুষ্ঠান থেকেই কৃতীদের হাতে ল্যাপটপ, নোটবুক, ফুলের তোড়া, মিষ্টি তুলে দেওয়া হয়