Asianet News BanglaAsianet News Bangla

"বিজেপি ফাঁদ পেতে রেখেছে", মন্ত্রীদের সতর্কবার্তা মমতার

 বৃহস্পতিবার নতুন মন্ত্রীসভার প্রথম বৈঠকে মন্ত্রীদের কিছু বিষয় সাফ জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য নির্দেশ হল, এবার থেকে আয়কর রিটার্নের যাবতীয় নথি সরকারের ঘরে জমা দিতে হবে মন্ত্রীদের। আয়কর জমা দেওয়ার পর প্রাপ্ত রসিদের কপি মুখ্যসচিবের ঘরে জমা দেওয়ার ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে বলে জানা যাচ্ছে।
 

Mamata Banerjee warns minsters about the trap if sting operation intending by BJP
Author
Kolkata, First Published Aug 19, 2022, 1:19 PM IST

মন্ত্রীসভায় রদ বদলের পর প্রথম বৈঠকেই মন্ত্রীদের সতর্ক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁদের করার পাশাপাশি কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশও দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবারের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে এসেছে বেশ কিছু তাৎপর্যপূর্ণ দিক। 

বৃহস্পতিবার নতুন মন্ত্রীসভার প্রথম বৈঠকে মন্ত্রীদের কিছু বিষয় সাফ জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য নির্দেশ হল, এবার থেকে আয়কর রিটার্নের যাবতীয় নথি সরকারের ঘরে জমা দিতে হবে মন্ত্রীদের। আয়কর জমা দেওয়ার পর প্রাপ্ত রসিদের কপি মুখ্যসচিবের ঘরে জমা দেওয়ার ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে বলে জানা যাচ্ছে। 
মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন কোনও ফাইল খুঁটিয়ে না পড়ে সই করবেন না, এমনকী সাদা কাগজে কিছু লেখা থাকলে তাতেও সই করবেন না। কোনও কাগজে সই করার আগে খেয়াল রাখবেন সই-এর উপরে বা নীচে যেন এমন কোনও জায়গা না থাকে যেখানে পরে কিছু লেখা যায়। পাশাপাশি তিনি মন্ত্রীদের গাড়িতে লালাবাতি, নীলবাতির নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কেও আবার মনে করিয়ে দেন। জেলার মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন কলকাতায় ঢোকার আগে পর্যন্ত পাইলট নিতে পারবেন না এবং কলকাতার মন্ত্রীরা কলকাতার সীমানা ছাড়ানোর আগে পর্যন্ত পাইলট নিতে পারবেন না। 
এদিন মুখ্যমন্ত্রীর বার্তায় উঠে আসে একাধিক সতর্কবাণী। বিজেপি স্টিং অপারেশন করাতে চাইছে বলেও দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। 
বৈঠকে বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,"তোমার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ আছে। এত অভিযোগ কেন?’’ 

আরও পড়ুনহঠাতই নবান্নে  মোদি-শাহর সমালোচক সুব্রহ্মণ্য়মের স্বামী, এবার কি বিজেপি নেতার তৃণমূলে যোগ? 


এছাড়া দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু, সেচ মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক, পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী, পর্যটন মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়দেরো নিজেদের কাজ ও দফতর সম্পর্কে সচেতন করলেন মুখ্যমন্ত্রী। 
পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাসিশ চক্রবর্তীর উদ্দেশ্যে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন,‘‘তোমার দফতর কিন্তু ঘুঘুর বাসা। নজর রাখবে।’’ বাবুলকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘‘পযর্টনে ইন্দ্রনীলরা কিছু পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছিল। সেগুলি রূপায়ণের ব্যাপারে ওঁর সঙ্গে কথা বলে বুঝে নিয়ো।’’
এদিন বিজেপিকে নিয়েও দলকে সতর্ক করে নেত্রী বলেন, ‘‘বিজেপি ফাঁদ পেতে রেখেছে। ‘স্টিং অপারেশন’ করাতে চাইছে। ৫০০ লোককে নানা ভাবে কাজে লাগাবে। তাই সাবধানে কাজ করবেন। সবসময় সতর্ক থাকতে হবে।’’

আরও পড়ুনমন্ত্রীদের পাইলটকারে 'না', মন্ত্রিসভার বৈঠক কড়া নির্দেশ মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios