আগামী ৪ ডিসেম্বর তৃণমূল কংগ্রেসের সমস্ত জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভিডিও কনফারেন্সে জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। বিভিন্ন জেলার যে সাংগঠনিক দুর্বলতা রয়েছে, সেগুলোকে মজবুত করা এবং আগামী ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে প্রাথমিক রণনীতি তৈরি করে দেওয়ার জন্য বেশ কিছু নির্দেশ দিতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন-শুভেন্দু মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পরই তৃণমূলের পার্টি অফিস 'দখল', বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তপ্ত খেজুরি

তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রের খবর, জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে এই বৈঠকের বেশকিছু নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে জেলায় জেলায় কিভাবে আরো সঙ্গবদ্ধ হয়ে প্রচারে নামা যেতে পারে সেই বিষয় নিয়ে নির্দেশিকা দিতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। চলতি সপ্তাহেই বাঁকুড়া সফরে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, এবার  থেকে সংগঠনের বিষয়ে বাড়তি গুরুত্ব দেবেন তিনি। সব জেলার অবজার্ভার হিসেবে তিনি নিজেই দায়িত্বপ্রাপ্ত থাকবেন বলে জানিয়েছেন দলনেত্রী। অন্যদিকে শুভেন্দু অধিকারীর মতো গুরুত্বপূর্ণ নেতা দলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করায় সংগঠন যাতে কোন ভাবে দুর্বল হয়ে না যায় সেই কারণেই এই বৈঠকে বলে মনে করা  হচ্ছে। 

আরও পড়ুন-তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিকে খোদ মন্ত্রীর ভাই, ভোটের আগে বাংলায় বদলাচ্ছে রাজনৈতিক চালচিত্র

শনিবার মালদা জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রশান্ত কিশোর। সংগঠন মজবুত করার জন্য জেলা নেতৃত্বকে বেশ কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে বৈঠক শেষে জানান মালদা জেলার তৃণমূল নেতারা। একই সঙ্গে, তারা জানান গোষ্ঠী বিবাদ মিটিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে এই বৈঠকে। ৭ ডিসেম্বর মেদিনীপুর কলেজের মাঠের জনসভা দিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 'বাংলাকে গুজরাট বানাতে দেব না' ও 'বাংলাকে কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের বঞ্চিত করছে কেন জবাব দাও' স্লোগানকে সামনে রেখে সভা হবে।