মোবাইলের মাধ্য়মেও ছড়াতে পারে সংক্রমণ,তাই কোভিড হাসপাতালে মোবাইল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল রাজ্য় সরকার। নির্দেশিকা জারি না হলেও টেক্সট মেসেজে রাজ্য়ের কোভিড হাসপাতালগুলিকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই খবর। জেলাশাসক, হাসপাতাল সুপার এমনকী কোভিড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে মঙ্গলবার পৌঁছে গিয়েছে সেই বার্তা।

এই মুহূর্তে কলকাতার সেরা ১০ খবর,যা আপনাকে ভাবাবেই...
 
এবার থেকে কোভিড হাসপাতালে কোনও রোগী বা স্বাস্থ্য কর্মীকে বাইরে মোবাইল জমা রেখে হাসপাতালে ঢুকতে হবে। মোবাইল রাখার পরিপ্রেক্ষিতে একটি রশিদ দেবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতাল থেকে বেরোনোর সময় পাওয়া যাবে  সেই মোবাইল। রোগীর সঙ্গে কথা বলতে চাইলে হাসপাতালের কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করতে হবে বাড়ির লোকজনকে।

চিকিৎসকদের পর এবার চারজন নার্স, কলকাতা মেডিক্যালে করোনা আতঙ্ক জারি.

অতীতেও দেখা গিয়েছে, করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় অনেক চিকিৎসকই হাতের আংটি খুলে রেখেছেন। এবার মোবাইল থেকেও সংক্রমণের কথা জানাল খোদ রাজ্য সরকার। তাই বাইরে থেকে এলে নিজের জামা কাপড় হাতা পায়ের সঙ্গে মোবাইলও সংক্রমণ মুক্ত করুন। প্রথমে মোবাইলের কভার খুলে তা স্যানিটাইজার দিয়ে মুছে নিন। কেউ কভার ছাড়া ফোন ব্যবহার করলে। পাতলা কাপড় দিয়ে মোবাইলটিকে মুছে নিন। পরে ব্যাটারি খুলে তা স্যানিটাইজ করুন। পরে ব্যাটারি কভার পরিয়ে ফের ফোন ব্যবহার করুন। কখনোই বাইরে থেকে ফোন নিয়ে ঘরে ঢুকবেন না। সংক্রমণমুক্ত না করে আসবাবের ওর রাখবেন না।

দ্বিতীয় চিঠিতেই সুর নরম,সুপ্রিম কোর্টের উল্লেখ দেখেই কি কেন্দ্রীয় দলকে ছাড়পত্র