ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ এবার কলকাতায়।  ফ্রান্স কনসুলেটের সামনে মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা বিক্ষোভ করে। তবে জোর করে ঢুকতে চাইলেও তাঁদের বিক্ষোভ অভিযান ব্যর্থ হয়। অনেক আগে থেকে বাঁধা দেয় পুলিশ।

আরও পড়ুন, নবান্ন অভিযানে পুলিশের বেদম মার খাওয়া কর্মীদের সম্মান জানাবে বিজেপি, জানালেন সৌমিত্র খাঁ

 

 

ডেপুটেশন জমা দেওয়া হল না, আটকাল পুলিশ
 
 ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে শনিবার কলকাতার আলিপুর সন্তোষ রায় রোডের ফ্রান্স কনসুলেটের সামনে মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা বিক্ষোভ দেখাতে আসে। কনসুলেটের প্রায় ২০০ মিটার আগে কলকাতা পুলিশ তাঁদেরকে আটকে দেয়। শনিবার এই মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা মূলত এসেছিল, ফ্রান্স কনসুলেটে এসে তাদের একটি ডেপুটেশন জমা দেওয়ার জন্য।  কিন্তু তাঁদেরকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। পুলিশ ২০০মিটার আগে তাঁদেরকে আটকে দেয়। সেখানে মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা জোর করে ঢুকতে চাইলে পুলিশ আটকায়। তারপর সেখানে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভকারীরা ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখায়।

আরও পড়ুন, 'ছড়িয়ে ছিটিয়ে বর্গি-পেয়াদা', দিলীপের সহায়কের ফেসবুক-পোস্টে তোলপাড় রাজ্য বিজেপি

 

 

ইতিহাসের শিক্ষককে হত্যা এবং শিরচ্ছেদ

প্রসঙ্গত, ইতিহাসের শিক্ষক স্য়ামুয়েল প্য়াটিকে হত্যা এবং শিরচ্ছেদ করার প্রতিক্রিয়ায় কট্টর ইসলামের বিরুদ্ধে ফরাসী সরকার কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে। মসজিত-সংগঠন বন্ধ, বাড়িতে তল্লাশি,সোশ্যাল মিডিয়ায় কড়া নজর এবং একাধিক তদন্তের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। মূলত পাশবিক কায়দায় হত্যার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর এরপর থেকেই শুরু হয় বিক্ষোভ মুসলিম সম্প্রদায়গুলিতে। যার আঁচ এসে পড়ে কলকাতাতেও।