কলকাতার জলাভূমি ভরাট নিয়ে রাজ্য সরকারকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল জাতীয় পরিবেশ আদালত। সূত্রের খবর, পূর্ব কলকাতা জলাভূমি বেআইনি দখলদারি এবং নির্মাণের মাধ্যমে ক্রমেই ভরাট হয়ে আসছে। গত ১৫ বছরে কী ভাবে সেই জলাভূমি ভরাট হয়েছে তা উপগ্রহ চিত্রেও ধরা পড়েছে।তাই পূর্ব কলকাতা জলাভূমি ভরাট নিয়ে কতগুলি অভিযোগ এখনও পর্যন্ত দায়ের হয়েছে এবং সেগুলি বর্তমানে কোন পর্যায়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে, তা নিয়ে রাজ্য সরকারকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল জাতীয় পরিবেশ আদালত।

আরও পড়ুন, ফের শুরু বউবাজারে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর টানেলের কাজ, অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট

প্রশাসন সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত পূর্ব কলকাতা জলাভূমি ভরাট নিয়ে ৩৫৭টি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।  আন্তর্জাতিক গুরুত্বসম্পন্ন ওই জলাভূমি যে ভাবে দ্রুত ভরাট হয়ে যাচ্ছে, তা নিয়েও এ দিন উদ্বেগ প্রকাশ করেছে পরিবেশ আদালত। তাই সোমবার পূর্ব কলকাতা জলাভূমি সংক্রান্ত মামলায় পরিবেশ আদালত, কলকাতার জলাভূমি ভরাট নিয়ে রাজ্য সরকারকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। সেই সঙ্গে যেহেতু ওই মামলাগুলি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারাধীন, তাই সেগুলির দ্রুত সমাধানের জন্যও হাইকোর্টকে অনুরোধ জানিয়েছে আদালত। 

আরও পড়ুন, করোনা মোকাবিলায় সতর্ক প্রশাসন, শহর থেকে বন্ধ হংকং ও চিনের সমস্ত উড়ান

সূত্রের খবর,  মামলার আবেদনকারী পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্ত বলেন,  '২০০৬ সালে পূর্ব কলকাতা জলাভূমি সংরক্ষণের জন্য তৈরি করা হয়েছিল  পূর্ব কলকাতা জলাভূমি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ১৪ বছরেও জলাভূমির এলাকা চিহ্নিতকরণের কাজ শেষ হয়নি। চিহ্নিতকরণ ও তার ঘেরার কাজ যতক্ষণ শেষ  না হওয়া পর্যন্ত জলাভূমি ভরাট আটকানো যাবে না। ' অপরদিকে বিধাননগর পুরসভার আইনজীবী পৌষালী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ' প্রকল্পটি বাস্তবায়িত করার জন্য ইতিমধ্যেই দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। সেটি পুর দফতরের মাধ্যমে অর্থ দফতরে পাঠানো হয়েছে। আর্থিক বরাদ্দের অনুমোদন পেলেই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।'